Home /News /business /
কর্মীদের বেতন ছাড়া ছুটিতে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু এয়ার ইন্ডিয়ায়

কর্মীদের বেতন ছাড়া ছুটিতে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু এয়ার ইন্ডিয়ায়

File Phooto

File Phooto

সম্প্রতি এয়ার ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ কথা জানানো হয়েছে।

  • Share this:

#মুম্বই: কর্মীদের বেতন ছাড়া ছুটিতে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করল এয়ার ইন্ডিয়া। সম্প্রতি এয়ার ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ কথা জানানো হয়। এখানেই শেষ নয়, বেতন ছাড়া ছুটিতে পাঠানোর পাশাপাশি, অনেক কর্মীদের বেতন কমিয়ে দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছে এয়ার ইন্ডিয়া।

স্বভাবতই এয়ার ইন্ডিয়ার এই সিদ্ধান্তে রাজনৈতিক শোরগোল শুরু হয়েছে। এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের বেতনহীন ছুটিতে পাঠানোর সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এর বিরুদ্ধে সব শ্রমিক সংগঠনকে একযোগে আন্দোলনে নামার ডাক দিয়েছেন। এমনকী, এর বিরুদ্ধে সরব হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন বিজেপি-র শ্রমিক সংগঠনকেও। তিনি বলেন, "কেন্দ্রীয় সরকার এই সময়ের সুযোগ নিয়ে রাজ্যগুলির সঙ্গে আলোচনা না করেই আইন বদল করছে। এই পরিস্থিতিতে এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের বেতন বন্ধ করে দিলে তাঁরা সংসার চালাবেন কী করে!"

এয়ার ইন্ডিয়ার বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শুধুমাত্র স্থায়ী কর্মীদের ক্ষেত্রেই এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। স্থায়ী কর্মীদের ছ'মাস অথবা দু' বছরের জন্য ছুটিতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। তবে প্রয়োজনে এই ছুটিতে পাঠানোর প্রক্রিয়া পাঁচ বছর পর্যন্ত বাড়ানো হতে পারে। ছুটিতে থাকাকালীন ওই সব কর্মীরা বেতন তো পাবেনই না। সঙ্গে কোনও ভাতাও পাবেন না। কোন কোন কর্মীকে ছুটিতে পাঠানো হবে, তা ঠিক করবে সংস্থার পরিচালন গোষ্ঠী। এয়ার ইন্ডিয়া সূত্রে খবর, কোভিড পরবর্তী বিমান শিল্পে মন্দার কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এয়ার ইন্ডিয়ার এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে অসামরিক পাইলটদের সংগঠন আইসিপিএ-ও। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, "সাধারণ কর্মীদের ৬০% বেতন কমানো হলেও উচ্চপদে থাকা অফিসারদের ৪% বেতন কমানো হয়েছে। বিমান চালাতে গিয়ে যে সব পাইলট কোভিডে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, তাঁরা কাজ করতে পারেননি এই অজুহাত দেখিয়ে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।" বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনায় বসারও প্রস্তাব দিয়েছে আইসিপিএ।

এয়ার ইন্ডিয়া প্রথম নয়, এর আগে সমস্ত বেসরকারি এয়ারলাইন্স কমবেশি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সবগুলি সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতির কারণে ওই সব কর্মীকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। তবে শিল্পের পরিস্থিতি ফিরলে ওই সব কর্মীকে আবার কাজে ফিরিয়ে নেওয়া হবে। এয়ার ইন্ডিয়ার এক কর্তার কথায়, "আপাতত কর্মীদের ছ'মাস কিংবা দু'বছরের জন্য ছুটিতে পাঠানো হচ্ছে। তবে এই প্রক্রিয়া পাঁচ বছর পর্যন্ত দীর্ঘায়িত হতে পারে।" সামগ্রিক ভাবে কোভিড প্রকোপের পর থেকে বিমান শিল্পের উপরে সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তার ফলেই এই অবস্থা বলে দাবি করছেন সংস্থার শীর্ষ কর্তারা।

Shalini Datta

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Air India, Coronavirus

পরবর্তী খবর