Home /News /business /

Home Loan: সমস্যা হতে পারে পরে, হোম লোন নেওয়ার আগে এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখা দরকার!

Home Loan: সমস্যা হতে পারে পরে, হোম লোন নেওয়ার আগে এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখা দরকার!

কয়েকটি বিষয় না জেনে হোম লোন নিয়ে নিলে পরবর্তীকালে সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সকলের স্বপ্ন থাকে নিজের একটি বাড়ি করার। এর জন্য বাজারে বিভিন্ন ধরনের হোম লোণ রয়েছে। কিন্তু এই সকল হোম লোন নেওয়ার আগে কয়েকটি বিষয় মাথায় দরকার। কয়েকটি বিষয় না জেনে হোম লোন নিয়ে নিলে পরবর্তীকালে সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। হোম লোন নেওয়ার আগে জেনে নিতে হবে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়।

আরও পড়ুন: কোটিপতি হওয়ার ৬ সহজ উপায়, এক নজরে দেখে নিন!

ডাউন পেমেন্টের টাকা

হোম লোন নেওয়ার আগে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল ডাউন পেমেন্টের টাকার পরিমাণ দেখে নেওয়া। হোম লোনের মাধ্যমে প্রপার্টির মোট ভ্যালুর প্রায় ৭৫ থেকে ৯০ শতাংশ দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। সুতরাং হোম লোন নেওয়ার আগে সেই প্রপার্টির জন্য কত টাকা ডাউন পেমেন্ট দিতে হবে সেটি দেখে নিতে হবে। অনেক ক্ষেত্রে এই ডাউন পেমেন্টের ওপর নির্ভর করে হোম লোনের সুদের পরিমাণ।

আরও পড়ুন: পোস্ট অফিস না স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া? এক নজরে দেখে নিন কোথায় ফিক্সড ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট খোলা দরকার!

ক্রেডিট স্কোর

যার ক্রেডিট স্কোর যত ভাল হবে, তার লোন পেতে তত বেশি সুবিধা। ক্রেডিট স্কোরের ওপর নির্ভর করে হোম লোনের টাকার পরিমাণ। এর ফলে প্রথম থেকেই নিজেদের ক্রেডিট স্কোরের ওপরে বেশি করে জোর দিতে হবে। যে সকল লোন নেওয়া হয়েছে, সেগুলোর টাকা ঠিক সময়ে জমা করতে হবে। কারণ এই সকল বিষয়ের ওপরেই নির্ভর করে ক্রেডিট স্কোর। ক্রেডিট স্কোরের ওপর নির্ভর করে পরবর্তী লোন।

ইএমআই (EMI)

হোম লোন নেওয়ার আগে দেখে নিতে হবে, প্রতি মাসে কত টাকা করে ইএমআই দিতে হবে। এক্ষেত্রে নিজেদের ক্যাপাসিটি অনুযায়ী হোম লোনের জন্য আবেদন করতে হবে। যে পরিমাণ টাকা প্রতি মাসে দেওয়া সম্ভব, সেই পরিমাণ টাকার হোম লোনের জন্য আবেদন করা উচিত। একবার হোম লোন নিয়ে নিলে প্রতি মাসে সেই ইএমআই জমা দিতে হবে। সেক্ষেত্রে সেটি জমা করতে না পারলে সুদের পরিমাণ আরও বেড়ে যাবে এবং ফাইনও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন: কী ভাবে পাওয়া যায়, সুবিধাই বা কী? এক নজরে দেখে নিন গোল্ড লোনের খুঁটিনাটি!

ইএমআই-এর গুরুত্ব

একবার হোম লোনের ইএমআই জমা করতে না পারলে সেটি নিজেদের ফিনান্সিয়াল প্রোফাইলে নেগেটিভ প্রভাব ফেলে। ঠিক সময় মতো ইএমআই জমা না করলে পরবর্তী সময়ের বিভিন্ন আর্থিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়া হোম লোনের ইএমআই জমা না করলে, পরবর্তীকালে সুদ সহ সেটি জমা করতে হয়। এর সঙ্গে আবার ফাইনও জমা দিতে হয়। হোম লোনের ইএমআই ঠিক সময়ে জমা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এর ওপরে নির্ভর করে ফিনান্সিয়াল প্রোফাইল।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Home Loan, Loan

পরবর্তী খবর