Home /News /business /
বাজেট ২০২১: বাজেটের সূত্র ধরে FRA গঠনের ঘোষণা করতে পারে সরকার!

বাজেট ২০২১: বাজেটের সূত্র ধরে FRA গঠনের ঘোষণা করতে পারে সরকার!

দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর এই প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করতে চলেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)। ১ ফেব্রুয়ারি, সোমবার ২০২১-২২ অর্থবর্ষের বাজেট পেশ হবে সংসদে। তার আগে সংসদে বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে আগামীকাল অর্থাৎ ২৯ জানুয়ারি থেকে।

দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর এই প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করতে চলেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)। ১ ফেব্রুয়ারি, সোমবার ২০২১-২২ অর্থবর্ষের বাজেট পেশ হবে সংসদে। তার আগে সংসদে বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে আগামীকাল অর্থাৎ ২৯ জানুয়ারি থেকে।

সব ঠিক থাকলে একটি ফিনান্সিয়াল রিড্রেসাল এজেন্সি ((FRA)) গঠন করতে পারে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ইতিমধ্যেই বিষয়টির উপরে বিস্তর বিবেচনা করা হয়েছে। অর্থমন্ত্রকের শীর্ষ আধিকারিকরা এ নিয়ে দীর্ঘ আলোচনাও করেছেন। সব ঠিক থাকলে একটি ফিনান্সিয়াল রিড্রেসাল এজেন্সি ((FRA)) গঠন করতে পারে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। অর্থনীতি-সংক্রান্ত নানা সমস্যার প্রতিকার বা সমাধান করতে অর্থাৎ রেগুলেটেড বা নিয়ন্ত্রণাধীন অর্থনৈতিক পরিষেবা প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে ওঠা গ্রাহকদের নানা অভিযোগ খতিয়ে দেখতেই এই সংস্থা গঠন করা হবে। সরকারের শীর্ষ আধিকারিক সূত্রে খবর, আসন্ন বাজেটে FRA গঠন নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা হতে পারে।

যতই দিন এগিয়ে আসছে, বাজেট নিয়ে প্রত্যাশা ক্রমবর্ধমান। ১ ফেব্রুয়ারি বাজেট পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)। এক্ষেত্রে FRA গঠন নিয়েও জল্পনা ক্রমবর্ধমান। এ নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরেই আলাপ-আলোচনা চলছিল বলে জানা গিয়েছে। আসলে একটি সামগ্রিক একমুখী সংস্থার অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল। যা খুচরো গ্রাহক থেকে শুরু করে সমস্ত ধরনের গ্রাহককে একটি নির্দিষ্ট ও যথাযথ সমাধান দিতে পারবে। এই সিঙ্গল উইন্ডো সলিউশনের সূত্র ধরেই FRA গঠনের পথে হাঁটতে চলেছে সরকার।

বলা বাহুল্য, বর্তমানে দেশের যে কনজিউমার রিড্রেসাল সিস্টেম (Consumer Redressal System) রয়েছে, তা নানা অংশে বিভক্ত। এক্ষেত্রে যেমন ব্যাঙ্কগুলির নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (RBI) বা বিমা সংস্থাগুলির তত্ত্বাবধানে থাকে ইনসিওরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (IRDA)। কিন্তু এগুলি সেক্টর বিশেষে বিভক্ত। তা ছাড়া অনেক ক্ষেত্রেই যথাযথ গুরুত্ব না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। সত্যি কথা বলতে, এভাবে নানা অংশে বিভক্ত রেগুলেটরি সিস্টেম কাঙ্ক্ষিতরূপে কাজ করতে সমর্থ নয়। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, ঠিক এখানেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে ফিনান্সিয়াল রিড্রেসাল এজেন্সি।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে এরকমই একটি রিড্রেসাল বডির হয়ে সওয়াল করেছিল ফিনান্সিয়াল সেক্টর লেজিসলেটিভ রিফর্মস কমিশন (FSLRC)। পরের দিকে ২০১৫ সালে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি (Arun Jaitley) তাঁর বাজেটে একটি টাস্ক ফোর্স গঠনের কথা জানিয়েছিলেন। যা সেক্টর নিউট্রাল রিড্রেসাল এজেন্সি হিসেবে কাজ করবে। এর পর এই টাস্ক ফোর্স একাধিক রিপোর্টও পেশ করে। প্রসঙ্গ উঠে আসে ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাইডারেরও (FSP)। এই টাস্ক ফোর্সের সুপারিশেও FRA গঠনের কথা উল্লেখ করা হয়। সেখানে বলা হয়, বিমা, ব্যাঙ্ক পেনশন, IRDA, SEBI-সহ একাধিক ক্ষেত্রের অভিযোগ ধাপে ধাপে খতিয়ে দেখতে হবে এই ফিনান্সিয়াল রিড্রেসাল এজেন্সিকে।

আপাতত ২০২১-২২ অর্থবর্ষের বাজেটের দিকে তাকিয়ে সবাই। সরকার FRA গঠনের কথা ঘোষণা করে কি না, সেটাই দেখার!

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Union Budget 2021

পরবর্তী খবর