?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

চিনা দ্রব্যের ওপর অতিরিক্ত ভরসা থেকে সরে আসা মুশকিল, বলছে বাণিজ্যিক সংগঠন

চিনা দ্রব্যের ওপর অতিরিক্ত ভরসা থেকে সরে আসা মুশকিল, বলছে বাণিজ্যিক সংগঠন
For representation: A photo tweeted by BJP's Tejinder Singh Tiwana as part of his protest against Chinese goods. (Image credit: Twitter@TajinderTiwana)

সীমান্তে চিনা সেনার আগ্রাসন নিয়ে ভারতের ভিতর থেকেই আওয়াজ উঠেছে চিন বর্জনের

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি: চিনা দ্রব্য বয়কট করার বিষয়টি ভারতের ক্ষেত্রে ততটা বাস্তব সম্মত নয়, কারণ, প্রতিবেশী দেশগুলির থেকেই বিভিন্ন বিনিয়োগ, আমদানির ওপর এতদিন ভারতের বাজার নির্ভর করত। সেটা হঠাৎ করে কাটিয়ে ওঠা সম্ভব নয়। ‌Federation of Indian Export Organisations–এর পক্ষ থেকে সংগঠনের প্রেসিডেন্ট এসকে সরফ এই কথা জানিয়েছেন।

তিনি মনে করেন, চিন দ্রব্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা চাপানোর আগে তাই ভারতের আরও বেশি করে চিন্তা করে দেখা উচিত। ভারতের পক্ষে চিনা দ্রব্যের বাজার ছাড়া চলা সম্ভব নয় বলেও মনে করেন তিনি। তিনি মনে করেন, তখনই চিনা দ্রব্যের ওপর নির্ভরশীলতা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব যখন ভারত নিজের ক্ষমতায় জিনিস তৈরি করতে পারবে। চিনের মতো আর অন্য দেশের সাহায্য তখন প্রয়োজন হবে না।

সীমান্তে চিনা সেনার আগ্রাসন নিয়ে ভারতের ভিতর থেকেই আওয়াজ উঠেছে চিন বর্জনের। কিন্তু ভারতের একটা বড় অংশের বাজার চিনা দ্রব্য দখল করে রেখেছে, তাই নতুন পথ খুঁজতেই হচ্ছে। অবশ্য সরফ জানিয়েছেন, কে চিনা দ্রব্য কিনবেন, কে কিনবেন না, সেটা সাধারণ মানুষের ওপরেই ছেড়ে দেওয়া উচিত।

এই সংগঠনের হিসাব মতে চিনে রফতানির পরিমাণ ১৬.‌৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে বেড়ে হয়েছে ১৬.‌৯৫ মার্কিন ডলার। অন্যদিকে আমদানির পরিমাণ ৬৮.‌২ থেকে কমে হয়েছে ৭৩.‌৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 25, 2020, 9:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर