Home /News /business /
Budget: বাজেট ২০২২: আয়করে মিলতে পারে বড়সড় ছাড়, মেডিক্লেমেও খরচ কমার সম্ভাবনা

Budget: বাজেট ২০২২: আয়করে মিলতে পারে বড়সড় ছাড়, মেডিক্লেমেও খরচ কমার সম্ভাবনা

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

Union Budget 2022: এমন কী বিজেপির অন্দরমহল থেকেও আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানোর দাবি উঠেছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আয়কর কাঠামোয় (Income Tax) বড়সড় বদল আসতে পারে বাজেটে। এমনই ধারণা বিশেষজ্ঞদের। আয়কর ব্যবস্থাকে বেতনভোগী শ্রেণীর কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতেই বেশ কিছু রদবদল করা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। এমনকী বিজেপির অন্দরমহল থেকেও আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানোর দাবি উঠেছে।

বাড়ি ভাড়া এবং চিকিৎসা বিমা প্রিমিয়ামও নতুন আয়কর ব্যবস্থার আওতায় আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণের জেরে চিকিৎসাক্ষেত্রে খরচ যেহেতু বেড়েই চলেছে, সেই কারণে স্ট্যান্ডার্ড ডিডাকশন, যা এককালীন বেতন থেকে কাটা হয় বিভিন্ন খরচ বহনের জন্য, তা ৫০ হাজার থেকে বাড়িয়ে বার্ষিক ১ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হতে পারে। তবে এই অর্থসংস্থা কর্মীদের চিকিৎসার জন্যই ব্যবহার করবে।

আয়করের ক্ষেত্রে যে ছাড় দেওয়া হয়, তা আরও বৃদ্ধির আশাই করছেন করদাতারা। এত দিন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ২.৫ লাখ টাকা আয়ের ক্ষেত্রে করে ছাড় মিলত। করোনাকালে তা ৫ লক্ষ টাকা করে দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। বহু আয়করদাতারাই চান, সর্বোচ্চ আয়কর সীমা ৩০ শতাংশ থেকে কমিয়ে যেন ২৫ শতাংশ করে দেওয়া হয়। এ ছাড়াও সর্বোচ্চ করের হার ১০ লক্ষ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ লক্ষ টাকা করার অনুরোধও করেছেন অনেক করদাতা।

আরও পড়ুন - প্রেমিকার মায়ের জন্য কিডনি দান করলেন প্রেমিক, এক মাসের মধ্যে ছেড়ে গেলেন সেই প্রেমিকা, তারপর...

বিভিন্ন রাজ্যের বিজেপি-র প্রতিনিধিদের সঙ্গে একটি প্রাক-বাজেট বৈঠক করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। সেখানে গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে যুক্ত শিল্পপতি, ব্যবসায়ী, শিক্ষাবিদ, অর্থনীতিবিদ, শিক্ষক, উপজাতি ও অনগ্রসর শ্রেণীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে নির্মলার কাছে মূলত ৩ টি দাবি রেখেছেন তাঁরা। সেগুলি হল ১) আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানো হোক। ২) মেডিক্লেম কভারেজের জন্য বেতন থেকে অর্থ কাটার হার কমানো হোক। ৩) কর কাঠামো আরও সরলীকরণ করা হোক। যদিও এই নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

আরও পড়ুন- অরুণাচল থেকে অপহৃত ১৭ বছরের তরুণ! ভারতে ঢুকে অপহরণ করেছে চিন, অভিযোগ

বিজেপির মোর্চা সভাপতিরাও বাজেট নিয়ে নিজেদের বক্তব্য সীতারমণকে জানান। কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে বৈঠক পরিচালনা করেন বিজেপির বর্ষীয়ান নেতারা। দলের রাজ্য সভাপতিরাও ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন। বাজেট সম্পর্কিত দাবিদাওয়া নিয়ে প্রায় ২০ টি লিখিত অনুরোধপত্র জমা পড়েছে। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, ওই অনুরোধপত্রের সংকলন করে নির্মলার হাতে তুলে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলেছে বাজেট অধিবেশন। করোনার জেরে এ বার দু’দফায় এই অধিবেশন হবে। প্রথম দফার অধিবেশন হবে ৩১ জানুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। দ্বিতীয় দফার অধিবেশন শুরু হবে ১৪ মার্চ, চলবে ৮ এপ্রিল পর্যন্ত। কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করা হবে ১ ফেব্রুয়ারি। দু’দফার অধিবেশনে সংসদের কাজগুলিকেও ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। প্রথম দফায় বাজেট পেশ করা হবে এবং বাজেট সংক্রান্ত বিষয়গুলি পর্যালোচনা করা হবে এবং দ্বিতীয় দফায় অর্থ সংক্রান্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিল সংসদে পেশ করা হবে এবং প্রয়োজনীয় আলোচনার মাধ্যমে সেই বিলগুলি পাশ করানো হবে বলেই খবর। রাজ্য সভার অধিবেশন সকাল ৯টায় শুরু হয়ে চলবে দুপুর ২টো পর্যন্ত। এর পর লোকসভার অধিবেশন চলবে দুপুর ৩টে থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

ইতিমধ্যেই সংসদের চারশোরও বেশি কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে অধিবেশনের কথা মাথায় রেখে একটি বৈঠক করেন রাজ্যসভার অধ্যক্ষ বেঙ্কাইয়া নায়ডু। ওই বৈঠকে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লাও গোটা পরিস্থিতির উপর নজর রেখেছেন। অধিবেশন চলাকালীন কঠোর ভাবে করোনা বিধি মেনে চলতে হবে। সামাজিক দূরত্ববিধি মেনেই উপস্থিত সাংসদদের বসার ব্যবস্থা করা হবে।

First published:

Tags: Budget, Income Tax, Union Budget 2022

পরবর্তী খবর