Home /News /business /
দিনে মাত্র ৭ টাকা জমিয়ে অবসরে ৬০,০০০ টাকা পেনশন! কোন প্রকল্পে এই সুযোগ দেখে নিন এক নজরে

দিনে মাত্র ৭ টাকা জমিয়ে অবসরে ৬০,০০০ টাকা পেনশন! কোন প্রকল্পে এই সুযোগ দেখে নিন এক নজরে

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

এই স্কিমের অধীনে, বিনিয়োগকারী প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ জমা করলে অবসর গ্রহণের পর মাসে ১ হাজার টাকা থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশন পাবেন।

  • Share this:

#কলকাতা: জনগণকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার জন্য সরকার ২০১৫ সালে অটল পেনশন যোজনা (Atal Pension Yojana) নামে এক প্রকল্প শুরু করে কেন্দ্রীয় সরকার। দেশের কোটি কোটি মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধা নিচ্ছেন। এই প্রকল্প অসংগঠিত শ্রমিকদের নিরাপত্তা প্রদান করে। এই প্রকল্পের অধীনে একজন ব্যক্তি শুধুমাত্র একটিই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। গ্রাহক প্রতিদিন মাত্র ৭ টাকা বাঁচিয়ে ৬০,০০০ টাকা পর্যন্ত পেনশন পেতে পারেন।

এই প্রকল্পে একজন ব্যক্তি ১৮ বছর বয়সে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। বার্ষিক ৬০,০০০ টাকা পেনশন পেতে ওই ব্যক্তিকে ৪২ বছরের জন্য প্রতি মাসে ২১০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে হবে। অর্থাৎ একদিনে মাত্র ৭ টাকা সঞ্চয় করতে হবে।

অটল যোজনার শর্তাবলী অটল পেনশনে বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে গ্রাহকের বয়স ১৮-৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে। বিনিয়োগকারীর একটি সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। যদি সেভিংস অ্যাকাউন্ট না থাকে তবে তাঁকে একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এ ছাড়াও, আবেদনকারীর একটি মোবাইল নম্বর থাকতে হবে এবং রেজিস্ট্রেশনের সময় তার সমস্ত তথ্য ব্যাঙ্ককে প্রদান করতে হবে।

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য বিশাল খবর! পুজোর আগেই ৩৮% মহার্ঘ্য ভাতার সম্ভাবনা!

৬০ বছরের বার্ষিক সুদ পাওয়া যাবে এই স্কিমের অধীনে, বিনিয়োগকারী প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ জমা করলে অবসর গ্রহণের পর মাসে ১ হাজার টাকা থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশন পাবেন। সরকার প্রত্যেক ৬ মাসে মাত্র ১২৩৯ টাকা বিনিয়োগ করলে ৬০ বছর বয়সের পরে বিনিয়োগকারী আজীবন প্রতি মাসে ৫০০০ টাকা পেনশন পাবেন।

প্রত্যেক মাসে ২১০ টাকা দিতে হবে বিনিয়োগকারী যদি ১৮ বছর বয়সে ৫ হাজার টাকা মাসিক পেনশনে পরিকল্পনা করলে প্রতি মাসে ২১০ টাকা করে জমা করতে হবে হবে। যদি প্রতি তিন মাসে একই টাকা দেওয়া হয় তবে সে ক্ষেত্রে ত্রৈমাসিকে ৬২৬ টাকা করে প্রদান করতে হবে। ৬ মাস পর পর জমা দিতে চাইলে বছরে ২ বার ১২৩৯ টাকা দিতে হবে। গ্রাহক যদি মাসে ১০০০ টাকা পেনশন পাওয়ার লক্ষ্যে ১৮ বছর বয়সে বিনিয়োগ শুরু করেন সে ক্ষেত্রে তাঁকে প্রতি মাসে ৪২ টাকা দিতে হবে।

সর্বনিম্ন ১৮ বছর থেকে ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করা যাবে। ৬০ বছরে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার পর আজীবন ৫,০০০ টাকা করে পেনশন প্রদান করা হবে। সাথে লগ্নিকারী রিটার্নের উপর কর ছাড়ের সুবিধা পাবেন।

First published:

Tags: Pension

পরবর্তী খবর