• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • শেয়ার বাজারের সূচকে ওঠানামা সাময়িক, আগামী বছরে সেনসেক্স ৮০,০০০ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে!

শেয়ার বাজারের সূচকে ওঠানামা সাময়িক, আগামী বছরে সেনসেক্স ৮০,০০০ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে!

শেয়ার বাজারের সূচকে ওঠানামা সাময়িক, আগামী বছরে সেনসেক্স ৮০,০০০ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে!

শেয়ার বাজারের সূচকে ওঠানামা সাময়িক, আগামী বছরে সেনসেক্স ৮০,০০০ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে!

অন্যান্য দেশের উদীয়মান শেয়ার বাজারের তুলনায় ভারতীয় স্টক মার্কেটের বুল র‍্যালি বেশি দৌড়বে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: গত কয়েকদিন ধরে ভারতীয় স্টক মার্কেটের সূচক নিম্নমুখী হলেও অনুমান করে হচ্ছে দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বুল রান চলতেই থাকবে। কম সময়ের অবকাশে বাজার দরে ওঠানামা আসতেই পারে কিন্তু যে সমস্ত বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘ সময়ের জন্য টাকা লগ্নি করার ঝুঁকি নিতে পারবে তাদের জন্য শেয়ার মার্কেট খুবই লাভজনক প্রমাণিত হতে পারে। বিদেশি ব্রোকারেজ ফার্ম মর্গান স্ট্যানলির (Morgan Stanley) বিশ্বাস, আগামী এক বছরে BSE সেনসেক্স ৭০ হাজার থেকে ৮০ হাজার পয়েন্টে পৌঁছতে পারে। অন্যান্য দেশের উদীয়মান শেয়ার বাজারের তুলনায় ভারতীয় স্টক মার্কেটের বুল র‍্যালি বেশি দৌড়বে। যদিও সংস্থাটি এও জানিয়েছে পরিস্থিতি খুব খারাপ হলে মার্কেট ৫০ হাজারেও নেমে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে গেলে কী করবেন? জানুন বিস্তারিত!

মর্গান স্ট্যানলি ইন্ডিয়ার প্রধান ইক্যুইটি স্ট্র্যাটেজিস্ট রিধাম দেশাইয়ের (Ridham Desai) তৈরি একটি রিপোর্টে ভারতীয় শেয়ার বাজারের ৩টি সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করেছে। এই সম্ভাবনা ৩টি হল বেস কেস, বুল কেস এবং বিয়ার কেস। ব্রোকারেজ সংস্থাটি জানিয়েছে, আগামী বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে সেনসেক্স ৭০ হাজার থেকে ৮০ হাজারের ঘরে থাকবে।

আরও পড়ুন: অ্যাকাউন্টে আসতে চলেছে ২০০০ টাকা, ঠিক করে নিন এই ভুলগুলো, না হলে আটকে যাবে টাকা

বেস কেস-এর অর্থ কী?

মর্গান স্ট্যানলি জানিয়েছে বেস কেস মানে হল স্টক মার্কেটের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অনুমান অনুযায়ী চলবে। করোনা অতিমারীর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসায় বাজারে স্থিরতা থাকবে এবং সরকার খরচ বাড়ানোর সাথে সাথে বিভিন্ন নীতির মাধ্যমে অর্থনীতিকে সাপোর্ট করবে। এই বেস কেসে সেনসেক্স ৭০ হাজার পর্যন্ত যেতে পারে।

বুল কেস-এর অর্থ কী?

এই ব্রোকারেজ সংস্থার অনুমান অনুযায়ী বুল কেসের ক্ষেত্রে সেনসেক্স ৮০ হাজার পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারে। বুল কেসের মাধ্যমে ফার্মটি বোঝাতে চাইছে ২০২২ সালের মধ্যে ভারতে বিদেশি বিনিয়োগ বেড়ে ২ হাজার কোটি ডলার পর্যন্ত চলে যেতে পারে। বুল কেস অনুমান সফলের শর্ত হল, করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে এবং তেলের দাম ও মার্কিন ডলারের মূল্য একটি সীমিত পরিসরে থাকতে হবে।

আরও পড়ুন: পঞ্জিকা ২৪ নভেম্বর: দেখে নিন নক্ষত্রযোগ, শুভ মুহূর্ত, রাহুকাল এবং দিনের অন্য লগ্ন!

বিয়ার কেস-এর অর্থ কী?

উপরোক্ত দু'টি ছাড়াও মর্গান স্ট্যানলি বিয়ার কেস নামে একটি সম্ভাবনার অনুমান করেছে। ব্রোকারেজ সংস্থাটি জানিয়েছে, যদি ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কড়াকড়ি ব্যবস্থা নেয়, তেলের দাম বেড়ে যায়, মার্কিন ফেড রিজার্ভ বন্ডের নীতি পরিবর্তন করে এবং করোনা সংক্রমণ আবার বাড়তে শুরু করে তবে সেক্ষেত্রে সেনসেক্স ৫০ হাজারেও নেমে যেতে পারে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: