Budget 2017: কালো টাকার হিসাব মেলানোটাই জেটলির কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ

কালো টাকার হিসাব মেলানোটাই এই মুহুর্তে অর্থমন্ত্রীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 27, 2017 05:27 PM IST
Budget 2017: কালো টাকার হিসাব মেলানোটাই জেটলির কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jan 27, 2017 05:27 PM IST

#নয়াদিল্লি:  গত ৮ নভেম্বর রাত ৮ টা-য় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ৩৫ মিনিটের ভাষণ। বাতিল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট। এটিএম, ব্যাঙ্কে টাকা তোলা, লেনদেনে চাপল একাধিক নিষেধাজ্ঞা। বাজারের বদলে ব্যাঙ্কের লাইনে দাঁড়াল গোটা দেশ। প্রতিশ্রুতি ছিল, ৫০ দিন পর সমস্যা মিটে যাবে। কালো টাকা মুক্ত হবে অর্থনীতি। সময়সীমা শেষ হওয়ার পর কালো টাকার উদ্ধারের রিপোর্ট কার্ড নিয়ে উচ্চবাচ্য করেননি প্রধানমন্ত্রী। নোট বাতিল ফাঁস হয়ে চেপে বসেছে দেশের অর্থনীতিতে। 

কালো টাকার হিসাব মেলানোটাই এই মুহুর্তে অর্থমন্ত্রীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ নোট বাতিলের রিপোর্ট কার্ড তার অনেক হিসাব উল্টে দিয়েছে। সেন্টার ফর স্টাডিস ইন ইকমনিক সায়েন্সের তৈরি রিপোর্ট জানাচ্ছে,

রিপোর্ট কার্ড 

-পয়লা জুন থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর স্বেচ্ছা আয় ঘোষণা প্রকল্প

-জমা পড়ে ৬৫ হাজার কোটি টাকা

Loading...

-৯ নভেম্বর থেকে ২৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাঙ্কে জমা প্রায় ১৫ লক্ষ কোটি টাকা

-বাকি ৬ দিনের জমার হিসাব দেয়নি আরবিআই

-বাজারে মোট সাড়ে ১৫ লক্ষ কোটির ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট ছিল

-ব্যাঙ্কে জমা পড়া পুরনো নোটের একটি বড় অংশই কালো টাকা

-অর্থনীতিতে সরাসরি কালো টাকা ঢোকায় জিডিপিতে প্রভাব পড়তে বাধ্য

-পুরনো নোটে কালো টাকা সাদা করার প্রকল্পেও সাড়া কম

-১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত মাত্র ২২০০ টি আবেদন জমা পড়েছে

নোট বাতিলের পর বড় নোটের প্রায় ৯৬ শতাংশই ব্যাঙ্কে জমা পড়ে গিয়েছে। এর অনেকটাই যে কালো টাকা, তা ভালোই জানেন মোদি-জেটলিরা। কালো টাকা থেকে মুক্তির আশা আর নেই। বরং জমা পড়া কালো টাকাকে চিহ্নিত করতে দাওয়াই খুঁজতে হবে অর্থমন্ত্রীকে। তারপর তা সাদা করে যোগ করতে হবে অর্থনীতিতে? কিভাবে সেটা সম্ভব ? জেটলির সামনে বিকল্প কিন্তু খুবই কম।

কালো টাকা রুখতে 

ব্যাঙ্কে জমা হিসাব বহির্ভূত টাকায় করের প্রস্তাব

প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ যোজনায় বাড়তি সুবিধা দেওয়া হতে পারে

এইভাবে বেশ কিছু কালো টাকাকে বৈধ করা সম্ভব

বাড়ি ও সংস্থায় সোনা রাখার ঊর্ধ্বসীমাও বেঁধে দেওয়া হতে পারে

ব্যাঙ্কের লাইনে সংঘর্ষ, অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয়ে মারা গিয়েছেন ৫৬ জন। দেশের সব প্রান্তে একই অবস্থা। বন্ধ কল-কারখানা, কাজ হারিয়েছেন অন্তত ৫ লক্ষ শ্রমিক। বহুগুণ বেড়েছে ফোর্সড আনএমপ্লয়মেন্ট। নোট বাতিলের কারণে অর্থনীতিতে ধস ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। এই অবস্থা কাটিয়ে বৃদ্ধির চাকা গড়ানোর প্রয়োজন বেশ কিছু অভিনব ঘোষণা। কিছু সাহসী পদক্ষেপ। সেই দিশা কি মিলবে জেটলির বাজেটে।

First published: 05:27:02 PM Jan 27, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर