Home /News /birbhum /
Birbhum: দিনের বেলায় পাড়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে শিয়াল! এলাকায় আতঙ্ক

Birbhum: দিনের বেলায় পাড়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে শিয়াল! এলাকায় আতঙ্ক

ইন্দাশ

ইন্দাশ গ্রামে আতঙ্ক

শিয়াল এখন দেখা যায় না বললেই চলে। তবে গ্রাম্য এলাকায় যদিও বা শিয়ালের দেখা পাওয়া যায় তাও আবার রাতে। কিন্তু বীরভূমের একটি গ্রামে এখন দিনের বেলায় ঘুরে বেড়াচ্ছে শিয়াল।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : শিয়াল এখন দেখা যায় না বললেই চলে। তবে গ্রাম্য এলাকায় যদিও বা শিয়ালের দেখা পাওয়া যায় তাও আবার রাতে। কিন্তু বীরভূমের একটি গ্রামে এখন দিনের বেলায় ঘুরে বেড়াচ্ছে শিয়াল। এতে ওই এলাকায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে গ্রামবাসীদের মধ্যে৷ শুধু আতঙ্ক বললে ভুল হবে, ওই শিয়ালটি রীতিমতো এলাকার মানুষদের কামড়ে দিচ্ছে বলে অভিযোগ। তাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন, তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়৷ দিনের বেলায় এমন শিয়ালের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে বীরভূমের লাভপুরের ইন্দাশ গ্রামে। ইতিমধ্যেই এই শিয়ালটি চার জনকে কামড়ে দিয়েছে। এর পাশাপাশি গ্রামে থাকা হাঁস-মুরগি ধরে খেয়ে ফেলছে ওই শিয়ালটি ,এমনই অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, দিনের বেলায় এই শিয়ালটি গ্রামের রাস্তা ঘাটে ঘুরে বেড়াচ্ছে। কখনও ঝোপঝাড়ের মধ্যে লুকিয়ে থাকছে৷ রাস্তায় মানুষ দেখলেই বেরিয়ে কামড়ে দিচ্ছে৷ এই পরিস্থিতিতে কি করবেন তা নিয়েই দিশেহারা হয়ে পড়েছেন গ্রামবাসীরা। বিষয়টি তাদের তরফ থেকে বন দফতরে জানানো হয়েছে বলেও দাবি করা হচ্ছে। তবে প্রশ্ন হল যেখানে রাতের বেলাতেই শিয়াল দেখতে পাওয়া যায় না, সেই জায়গায় কেন এই গ্রামে দিনের বেলায় এইভাবে এই শিয়ালটি ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং আতঙ্ক তৈরি করছে? এর কারণ গ্রামের বাসিন্দাদের থেকেই জানা গিয়েছে। গত দু'বছর আগে এই শিয়ালটি বাচ্চা অবস্থায় গ্রামে চলে আসে দলছুট হয়ে। তারপর গ্রামের বাসিন্দারা ওই শিয়ালটিকে খাবার-দাবার দিতে শুরু করে। গ্রামের অন্যান্য প্রাণীদের সঙ্গে মিশে যায় শিয়ালটি। কিন্তু বড় হয়ে সে হিংস্র হয়ে ওঠে এবং গ্রামের বাসিন্দাদের কাছে আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে। যদিও বীরভূম জেলা বন দফতরের আধিকারিক ডিএম প্রধান জানিয়েছেন, বিষয়টি প্রতি নজর রাখা হচ্ছে। আমরা বনদপ্তরকে সজাগ থাকতে বলেছি। পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও একটু সচেতন থাকতে হবে। এর পাশাপাশি কেউ যদি আহত হয়ে থাকেন তাহলে বনদপ্তরের তরফ থেকে তার চিকিৎসা করা হবে।

    First published:

    Tags: Birbhum

    পরবর্তী খবর