Home /News /birbhum /
Birbhum News: বদলে যাবে সিউড়ি, সেন্ট্রালাইজড সার্ভিলেন্স অ্যান্ড মনিটরিং সিস্টেম চালু শহরে! কী হবে এতে?

Birbhum News: বদলে যাবে সিউড়ি, সেন্ট্রালাইজড সার্ভিলেন্স অ্যান্ড মনিটরিং সিস্টেম চালু শহরে! কী হবে এতে?

সেন্ট্রালাইজড [object Object]

Birbhum News: বীরভূম জেলা পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, সিউড়ি শহরকে ইতিমধ্যেই ১৩৬টি সিসিটিভি ক্যামেরায় ঘিরে ফেলা হয়েছে।

  • Share this:

    বীরভূম : নিরাপত্তার জন্য আগেই সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হয়েছে সিউড়ি শহরকে। এবার এই শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করার লক্ষ্যে এবং তৎক্ষণাৎ পদক্ষেপ গ্রহণের মত ব্যবস্থাপনার জন্য চালু হল সেন্ট্রালাইজড সার্ভিলেন্স এন্ড মনিটরিং সিস্টেম। আসলে একটি কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে এবার গোটা শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার উপর নজরদারি চালানোর জন্যই এই ব্যবস্থাপনা। বীরভূম জেলা পুলিশের তরফ থেকে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা এই ব্যবস্থার শুভারম্ভ করা হল। এই ব্যবস্থা চালু হওয়া মানেই নাগরিকদের নিরাপত্তা থেকে শুরু করে নানা সুবিধা বাড়ল বলেই জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী। বীরভূম জেলা পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, সিউড়ি শহরকে ইতিমধ্যেই ১৩৬টি সিসিটিভি ক্যামেরায় ঘিরে ফেলা হয়েছে। সেই সকল সিসিটিভি ক্যামেরায় যা ফুটে উঠছে তা পর্যবেক্ষণ করার জন্য সিউড়ি থানায় তৈরি করা হয়েছে সেন্ট্রালাইজড সার্ভিলেন্স এন্ড মনিটরিং সিস্টেম। সেখান থেকেই পুরো শহরকে কন্ট্রোল করা হবে।

    এর পাশাপাশি সিউড়ি শহরের ১৩টি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সাউন্ড বক্স লাগানো হয়েছে বলে জানান বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী। এই সকল সাউন্ড বক্স লাগানোর উদ্দেশ্য হিসাবে তিনি জানান, কোন জায়গায় যানজট অথবা অন্য কোনো সমস্যা তৈরি হয়েছে তা সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে এই কন্ট্রোলরুম থেকে দেখে এনাউন্স করা হবে। ফলে সেখানে কর্মরত কর্মী বিষয়টি জানতে পারবেন। ফলে সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ গ্রহণ করা সম্ভব হবে।

    আরও পড়ুন: 'টোটো চালক-চিকিৎসককেও ডাকছে, তারপর...', দুর্গাপুরে গর্জে উঠলেন মমতা! নিশানায় কে?

    এর পাশাপাশি এই সকল সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে সকাল-বিকাল অথবা উৎসবের দিনগুলিতে পথচলতি মানুষদের বিনোদন প্রদানের জন্য রবীন্দ্র সংগীত অথবা সেই উৎসব সংক্রান্ত গান বাজানো হবে। এই ব্যবস্থার ফলে শহরের বাসিন্দারা এবং শহরে আগতরা বিভিন্ন ধরনের সুবিধা পাবেন বলে জানান বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার।

    আরও পড়ুন: পাঁশকুড়ার দ্বিতীয় তারাপীঠের মন্দির খুলে গেল, তারা মায়ের ভক্তদের জন্য সুখবর!

    যেমন এই ব্যবস্থার ফলে ট্রাফিক জ্যাম থেকে শহরকে অনেকটাই মুক্ত রাখার পাশাপাশি চুরি, ছিনতাইয়ের মত ঘটনাতেও দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হবে। এছাড়াও ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে এমন দুটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানান বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র নাথ ত্রিপাঠী। এই ক্যামেরার মাধ্যমে কোন গাড়ি অথবা বাইক চালক ট্রাফিক আইন লংঘন করলে তার নম্বর সহ শনাক্ত করা সম্ভব হবে। ফলে ট্রাফিক আইন লংঘন করে পুলিশের চোখ ফাঁকি দেওয়াও এখন কষ্টসাধ্য হয়ে উঠবে চালকদের কাছে।

    মাধব দাস

    First published:

    Tags: Bangla News, West Bengal news

    পরবর্তী খবর