Home /News /birbhum /
Birbhum News: হাইকোর্টের নির্দেশের পর কলকাতায় সুকন্যা, থানায় ছুটলেন সুমিত

Birbhum News: হাইকোর্টের নির্দেশের পর কলকাতায় সুকন্যা, থানায় ছুটলেন সুমিত

সুমিত রঞ্জন মণ্ডল

সুমিত রঞ্জন মণ্ডল

অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে গরু পাচার কান্ডের রেস কাটতে না কাটতেই গোদের ওপর বিষফোঁড়া হয়ে হাজির শিক্ষক নিয়োগের মামলা।

  • Share this:

    #বীরভূম: অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে গরু পাচার কান্ডের রেশ কাটতে না কাটতেই গোদের ওপর বিষফোঁড়া হয়ে হাজির শিক্ষক নিয়োগের মামলা। বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে এক মামলাকারী অনুব্রত মণ্ডলের নিয়ে সুকন্যা মন্ডল এবং তার আরও পাঁচ আত্মীয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন টেট পরীক্ষায় পাশ না করেই চাকরিতে নিয়োগ হওয়ার। এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রত্যেককে সমস্ত নথিপত্র নিয়ে বৃহস্পতিবার হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

    এই নির্দেশ পাওয়ার পর অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যা মণ্ডল বুধবার কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন। অন্যদিকে এই মামলায় অভিযুক্ত অনুব্রত মণ্ডলের ভাই হিসাবে পরিচিত সুমিত মন্ডল তড়িঘড়ি বোলপুর থানার দ্বারস্থ হন বুধবার সন্ধ্যাবেলায়। তিনি বোলপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে যান এই মর্মে, তিনি টেট উত্তীর্ণ এবং তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় যে খবর রয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুয়ো।

    আরও পড়ুন - ২০১৯-এর পর বিজেপি, ’২১-এ ফের তৃণমূলে, রাজনীতিতে বর্ণময় চরিত্র অনুব্রতর ভাই সুমিত

    আরও পড়ুন - মেগা অভিযানের প্রস্তুতি ? ১৬০ জনকে ১০টি দলে ভাগ করে ইডি আসছে রাজ্যে, থাকবে না ফাঁক

    ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সুমিত মন্ডল জানান, \"সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং মিডিয়ায় যা ছড়ানো হচ্ছে অর্থাৎ আমি টেট উত্তীর্ণ নয়, তা ভুল। আমার কাছে টেট উত্তীর্ণ হওয়ার সার্টিফিকেট রয়েছে এবং আমি কর্মরত। তাই আমি বোলপুর থানার দ্বারস্থ হয়েছি এই মর্মে যে আমার কাছে সার্টিফিকেট রয়েছে এবং আমার বিরুদ্ধে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমার চরিত্র নিয়ে টানাটানি হচ্ছে।\"

    এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সুমিত মন্ডল দীর্ঘক্ষণ ধরে বোলপুর থানায় থাকলেও তার অভিযোগ নেওয়া হয়নি থানার তরফ থেকে। সুমিত মন্ডল জানিয়েছেন, \"অভিযোগ করতে এসেছিলাম কিন্তু উনারা আমার অভিযোগ নেন নি। উনারা জানিয়েছেন এই মামলাটি বিচারাধীন হওয়ায় তারা হস্তক্ষেপ করতে পারবেন না।\"

    সুমিত মন্ডল ২০১৭ সালে প্রাথমিকের চাকরিতে নিযুক্ত হন। তিনি ২০১৪ সালে পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তিনি নওডাঙ্গার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক। তবে তিনি এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন কিনা তা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকাল তিনটেই যে মামলা রয়েছে তা থেকেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

    Madhab Das

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Anubrata Mondal

    পরবর্তী খবর