Home /News /birbhum /
Birbhum Weather News|| মর্মান্তিক! পরপর দু'দিনে বজ্রাঘাতে বীরভূমে মৃত ২

Birbhum Weather News|| মর্মান্তিক! পরপর দু'দিনে বজ্রাঘাতে বীরভূমে মৃত ২

Birbhum Lightning Death: বজ্রপাতের সময় বজ্রাঘাতে পরপর দু'দিন মৃত্যু হল দু'জনের।

  • Share this:

    #মাধব দাস, বীরভূম: দিন কয়েক ধরেই রাজ্যের অন্যান্য জেলার পাশাপাশি তাপমাত্রার পারদ বেড়েছে বীরভূমে। তবে তাপমাত্রার পারদ বাড়লেও সোমবার থেকে স্থান বিশেষে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড় বৃষ্টির দেখা মিলছে। আর এই বজ্রপাতের সময় বজ্রাঘাতে পরপর দু'দিন মৃত্যু হল দুজনের। বজ্রাঘাতে চলতি সপ্তাহে প্রথম এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বীরভূমের খয়রাশোল থানার অন্তর্গত মজুরা গ্রামে। মৃত ওই ব্যক্তির নাম স্বপন বাউড়ি। ৫৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি ওই দিন মাঠ থেকে চাষের কাজ করে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় বজ্রাঘাতে তিনি লুটিয়ে পড়েন। তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বাসিন্দারা দুবরাজপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পর দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার তার সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ময়নাতদন্ত করা হয়।

    আরও পড়ুন: অন্নপ্রাশনে অভিনব উপহার, নাতনিকে মঙ্গলগ্রহের জমি কিনে দিলেন ঠাকুমা, কত দাম পড়ল?

    একইভাবে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বজ্রাঘাতে মৃত্যু হল দুবরাজপুরের এক ব্যক্তির। দুবরাজপুরের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের জগন্নাথ সাহা নামে ৫৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি পোদ্দারবাঁধ এলাকার বাসিন্দা। তার বাড়িতেই রয়েছে একটি দোকান। সেই দোকানে তিনি যখন কর্মরত অবস্থায় ছিলেন সেই সময়ে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড় বৃষ্টি শুরু হয়। তখনই তার মৃত্যু হয়। দুবরাজপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান পীযূষ পান্ডে জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তি দোকানে কাজ করার সময় বজ্রপাত হলে তার মৃত্যু হয়।

    আরও পড়ুন: ভুবন বাদ্যকরের ভাগ্য বদল! রাজমহলে বসে হাতে পেলেন দামী উপহার! ভাইরাল ভিডিও...

    মৃত জগন্নাথ সাহাকে প্রথমে দুবরাজপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। বুধবার ওই ব্যক্তির দেহ সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে । অন্যদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যা বেলায় বজ্রপাতের কারণে আহত হন দুবরাজপুরের আরও এক বাসিন্দা। আহত হওয়া ব্যক্তির নাম অনুপ দাস। ৩৫ বছর বয়সী অনুপ দাস দুবরাজপুরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। আহত হওয়ার পর তাকে দুবরাজপুর গ্রামীণ হাসপাতালে আনা হয় এবং প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

    তবে প্রশ্ন হল এই ভাবে কেন বাড়ছে এত বজ্রবিদ্যুৎ এবং বজ্রাঘাতে মৃত্যুর সংখ্যা। এই প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, অতিরিক্ত পরিমাণে গাছপালা কেটে দেওয়ার কারণে এমন ঘটনা ঘটতে পারে। বিশেষ করে এখন তাল গাছের সংখ্যা সেই ভাবে দেখতে পাওয়া যায় না বললেই চলে। এটাও একটি বড় কারণ হতে পারে।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Birbhum

    পরবর্তী খবর