Home /News /birbhum /
Birbhum News : ডিম ভাত খেতেই অসুস্থ গার্লস হস্টেলের ১৯ পড়ুয়া, ভর্তি হাসপাতালে

Birbhum News : ডিম ভাত খেতেই অসুস্থ গার্লস হস্টেলের ১৯ পড়ুয়া, ভর্তি হাসপাতালে

হাসপাতালে ভর্তি ১৯ পড়ুয়া

হাসপাতালে ভর্তি ১৯ পড়ুয়া

দুপুরের খাবার খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৯ জন পড়ুয়া। কারো পেটে ব্যথা, কেউ বমি, পায়খানা, শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

  • Share this:

    #বীরভূম: দুপুরের খাবার খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৯ জন পড়ুয়া। কারো পেটে ব্যথা, কেউ বমি, পায়খানা, শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। হস্টেলে থাকা এত সংখ্যক পড়ুয়া এইভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে অভিভাবকদের মধ্যে।

    দুপুরের খাবার খেয়ে এমন অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মহম্মদ বাজার ব্লকের জয়পুরে থাকা ডনবস্কো চার্চের কার্মেল ভবন গার্লস হস্টেলে। এই হোস্টেলের ১৯ জন পড়ুয়া একসঙ্গে অসুস্থ হয়ে যাওয়ার পর তাদের মহম্মদ বাজার ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয় রবিবার বিকাল বেলায়। প্রথমে ১১ জন এবং পরে আরও আট জনকে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে বেশিরভাগ জনের শারীরিক অবস্থা সোমবার স্থিতিশীল হলেও এক পড়ুয়ার পেটে ব্যথা এখনো কমেনি। চিকিৎসকেরা তাকে দেখে আরও উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করছেন বলে জানা গিয়েছে হাসপাতাল সূত্রে।

    ওই গার্লস হস্টেলের পড়ুয়া প্রতিমা মার্ডির মা চুমকি মার্ডি জানিয়েছেন, "রবিবার সন্ধ্যা বেলা আমাদের খবর দেওয়া হয় এমন ঘটনা ঘটেছে। তড়িঘড়ি আমরা রাত্রি ন’টা নাগাদ হাসপাতালে ছুটে আসি। সেখানে এসে দেখতে পাই এই ভাবে সবাই অসুস্থ। আজ অনেকে সুস্থ হলেও আমার মেয়ে এখনো সুস্থ হয়ে ওঠেনি। তাকে সিউড়ি অথবা অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়া হতে পারে।"

    আরও পড়ুন: বিজেপির হাত ধরে বাংলায় আগমন 'হোটেল সংস্কৃতি'? রাজনৈতিক মহলে জোর চর্চা 

    পাশাপাশি তাদের দাবি, "গতকাল দুপুরে ডিম ভাত দেওয়া হয়েছিল। সেই সময় পড়ুয়ারা জানিয়েছিল ডিমটি খারাপ রয়েছে। কিন্তু পড়ুয়াদের একপ্রকার জোর করেই সেই ডিম খাওয়ানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে হোস্টেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়, রান্না করা হয়েছে, খেয়ে নিতে হবে না হলে টাকা নষ্ট হবে।"

    আরও পড়ুন: বীভৎস মেঘ ভাঙা বৃষ্টি! তছনছ হয়ে গেল শিমলা, ভয়াবহতার ভাইরাল ভিডিও

    যদিও এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে চার্চের ইনচার্জ ফাদার শান্তি সরেন জানিয়েছেন, "এই বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না। তার কারণ হোস্টেলের ম্যাডামরা এই বিষয়ে আমাকে কিছু জানাননি। তবে যখনই পড়ুয়ারা অসুস্থ হয়ে পড়ে, তখনই তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং অভিভাবকদের খবর দেওয়া হয়।

    Madhab Das

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Local news

    পরবর্তী খবর