পুজোয় বিনা পয়সায় আন্দামান, বড়িশা সর্বজনীনে জারোয়াদের দিনযাপনের ছবি

পুজোয় বিনা পয়সায় আন্দামান, বড়িশা সর্বজনীনে জারোয়াদের দিনযাপনের ছবি
  • Share this:

#কলকাতা: পুজোয় বিনা পয়সায় আন্দামান। টিজারেই চমক। চমক দিচ্ছে বড়িশা সর্বজনীন। মণ্ডপে আন্দামান-নিকোবরের অ্যাম্বিয়েন্স। জারোয়াদের সংসারে সপরিবার দুর্গার বোধন থেকে বিসর্জন। শিল্পী গৌরাঙ্গ কুইল্যার ভাবনায় সবুজ দ্বীপের বাসিন্দাদের সবুজ দিনযাপনের কিছু মুহুর্ত বড়িশা সর্বজনীনে।

রহস্যে ঘেরা জারোয়া ল্যান্ড। নামেই আদিম গন্ধ। বাঙালির জারোয়া চেনা কাকাবাবু, সন্থুর হাত ধরে।

প্রকৃতির অন্দরে বাস। গহীন জঙ্গলে জন্ম থেকে মৃত্যু। সবুজের কোলেপিঠে দিনযাপন। আধুনিকতার সঙ্গে জন্ম-আড়ি। জারোয়াদের সহজ, সরল জীবনে থাবা বসাতে ভয় পায় আধুনিক সমাজও। তাই আজও তাঁরা অধরা। বড়িশা সর্বজনীনে এবছর জারোয়াদের উৎসব।

কিছুটা চেনা। অনেকটাই অজানা। ইতিউতি ছড়িয়ে জারোয়া মহিলা, পুরুষ। জ্বলজ্বলে চোখ। হাতে তীর ধনুক। আসল নয়। সবই মাটির। গৌরাঙ্গ কুইল্যার আরও এক অনবদ্য সৃষ্টি। আস্ত এক জারোয়া গ্রামই এখানে মণ্ডপ। চারদিকে হোগলা পাতার ছাউনি। শুকনো ফুল, ফল, গাছের ছড়াছড়ি । রঙহীন, জৌলুসহীন। অথচ কী ভীষণ প্রাণবন্ত।

ইট, কাঠ, সিমেন্ট, কংক্রিটের জঙ্গলে এক বুক তাজা নিঃষ্বাস। শিল্পীর কথায়, একমাত্র মানুষই প্রকৃতির নিয়মকে অস্বীকার করার দুঃসাহস দেখায়। গাছ কাটা থেকে সবুজ ধ্বংস। সীমা ছাড়াচ্ছে অত্যাচার। থিমের আড়ালে কী অশনি সংকেত দিচ্ছেন শিল্পী?

একটাই জিজ্ঞাসা আন্দামান মানে কি শুধুই জারোয়া? অধরা এক দ্বীপাংশ। আন্দামান মানে তো সেলুলার জেলও। হাজারো স্বাধীনতা সংগ্রামীর লড়াই বীরত্ব। পাথুরে দেওয়ালের আড়ালে জমে থাকা রাগ আর কান্না। জয়গান। সেলুলার বাদ দিয়ে আন্দামান কি শুধুই জারোয়া? সেটাই শিকড়। নাকি আত্মত্যাগ আরও একটা শিকড়। পুজোর কদিন না হয় আধখানা শিকড়ই চিনুক মানুষ। বাকিটা তুলে রাখুন থিম শিল্পী গোবিন্দ কুইল্যা পরের বছরের জন্য। হোক না থিম, সবুজ দ্বীপের প্রতি আজও যে বাঙালির সেই অমোঘ আকর্ষণ।

নিউজ 18 বাংলা

First published: October 2, 2018, 10:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर