Home /News /bankura /
Bankura news|| বাঁকুড়ার প্রাণপুরুষদের জন্মভিটে পরিদর্শনে রাজ্য হেরিটেজ কমিশন

Bankura news|| বাঁকুড়ার প্রাণপুরুষদের জন্মভিটে পরিদর্শনে রাজ্য হেরিটেজ কমিশন

title=

Heritage commission visit: ভাস্কর রামকিঙ্কর বেইজ এবং বিশ্ব বরেণ্য সাংবাদিক রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের জন্মভিটে পেতে চলেছে রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের স্বীকৃতি

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: বাঁকুড়ার দুই কৃতী সন্তান ভাস্কর্য শিল্পী রামকিঙ্কর বেইজ আর অন্যজন বিশ্ব বরেণ্য সাংবাদিক রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়। রামকিঙ্কর বেইজের জন্ম ১৯০৬ সালের ২৫ মে।বৃটিশ শাসিত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ার যোগীপাড়া এলাকায় তার জন্ম। বাঁকুড়া ছিল তখন প্রত্যন্ত গ্রাম। সেখানকার বেশিরভাগ মানুষই ছিল দিনমজুর পেশায়। রামকিঙ্কর বেইজের পিতা ছিলেন চণ্ডীচরণ এবং মাতা সম্পূর্ণাদেবী। পিতা ছিলেন পেশায় একজন নাপিত। ক্ষৌরকর্ম ছিল তাদের পারিবারিক পেশা। চার ভাইবোনের মধ্যে সবচেয়ে ডানপিটে আর পাগলাটে স্বভাবের ছিলেন রামকিঙ্কর। শৈশবেই তার ভাস্কর্যের সঙ্গে প্রেম গড়ে উঠেছিল বাঁকুড়ার কুমোরদের কাজ দেখে। তাদের মূর্তি গড়ার কাজ তাকে বেশ আনন্দ দিত। সে আনন্দের বশেই বাল্যকালেই কুমোরদের দেখাদেখি কাদামাটি দিয়ে মূর্তি গড়েছেন তিনি। তারপর দেশ-বিদেশ জুড়ে খ্যাতি অর্জন করেছেন তিনি।

    আরও পড়ুন: উত্তরপাড়ার ভবঘুরে আবাসন থেকে নিখোঁজ মহিলা, বিক্ষোভে শামিল রাজনৈতিক দল

    ১৮৬৫ সালের ২৯ মে বাঁকুড়ার পাঠকপাড়ায় বিশ্ব বরেণ্য সাংবাদিক রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম হয়। তাঁর বাবার নাম শ্রীনাথ চট্টোপাধ্যায় এবং মায়ের নাম ছিল হরসুন্দরী দেবী। তাঁর পিতৃকুলের অনেকেই সংস্কৃত শাস্ত্রে সুপণ্ডিত ছিলেন এবং তাঁর ঠাকুরদাদা রামলোচন চট্টোপাধ্যায় বর্ধমানের একটি চতুষ্পাঠীতে অধ্যাপনা করতেন। রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের থেকে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বয়সে চার বছরের বড় ছিলেন। যদিও তার ছাপ তাঁদের বন্ধুত্বে কখনও পড়েনি। রামানন্দ যেমন রবীন্দ্রনাথের সখ্যকে তাঁর জীবনের ‘শ্রেষ্ঠ সৌভাগ্য’ বলে উল্লেখ করেছিলেন, রবীন্দ্রনাথের কাছেও রামানন্দ ছিলেন অত্যন্ত প্রিয় বন্ধু। ‘প্রবাসী’ পত্রিকায় লেখালেখি কিংবা বিশ্বভারতীর প্রতিষ্ঠার সূত্রে আন্তরিক হৃদ্যতা দেখা গেলেও, তাঁদের সম্পর্কের আরও একটি দিক ছিল। রামানন্দ চট্টোপাধ্যায় ছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের এক অন্যতম রাজনৈতিক পরামর্শদাতাও। লিখেছেন একাধিক বই। আজও দেশে বিদেশে সেই বইগুলির চাহিদা তুঙ্গে।

    বাঁকুড়াবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি ছিল ভাস্কর শিল্পী রামকিঙ্কর বেইজ ও বিশ্ব বরেণ্য সাংবাদিক রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম ভিটে হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করুক রাজ্যের হেরিটেজ কমিশন। কিন্তু নানা জটিলতায় তা এতদিন থমকে ছিল। এবার বাঁকুড়াবাসির সেই দাবিকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে সচেষ্ট হলেন পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন উন্নয়ন কর্পোরেশনের ভাইস চেয়ারম্যান সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। সায়ন্তিকা নিজে হেরিটেজ কমিশনকে চিঠি লেখেন। সায়ন্তিকার লেখা চিঠি পাওয়া মাত্র বিন্দুমাত্র দেরি করেনি রাজ্য হেরিটেজ কমিশন। সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই চিঠির ভিত্তিতে সাড়া দিয়ে হেরিটেজ স্বীকৃতির তালিকায় বাঁকুড়া শহরের যোগীপাড়ার ভাস্কর রামকিঙ্কর বেইজের জন্ম ভিটে এবং বিশ্ববরেণ্য সাংবাদিক রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের বাঁকুড়া শহরের পাঠক পাড়ার জন্ম ভিটে এই দুটি স্থান পরিদর্শন করেন হেরিটেজ কমিশনের সদস্যরা।

    শুরু হয় সমস্ত কিছু নথিভুক্ত করার কাজ। বৃহস্পতিবার পরিদর্শন করতে আসেন রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের প্রতিনিধি ওএসডি ডঃ বসুদেব মালিক এবং তার সাথে ছিলেন সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, বাঁকুড়া পৌরসভার চেয়ারপার্সন অলকা সেনমজুমদার, উপপৌর প্রধান , আট নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সমেত অন্যান্যরা। এখন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা এই দুই জন্ম ভিটেবাড়ি কখন হেরিটেজ স্বীকৃতি পাবে এবং সেগুলোর সংস্কার শুরু হবে।

    জয়জীবন গোস্বামী

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Bankura

    পরবর্তী খবর