Home /News /bankura /
Bankura: নার্সের শ্লীলতাহানীর চেষ্টায় ধৃত যুবকের ১৪দিনের জেল হেফাজত 

Bankura: নার্সের শ্লীলতাহানীর চেষ্টায় ধৃত যুবকের ১৪দিনের জেল হেফাজত 

এক উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত এক নার্সকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে ধৃত যুবককে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল বাঁকুড়া জেলা আদালত। জানা যায় ধৃত ওই যুবকের নাম শ্যামল রায়।

  • Share this:

    বাঁকুড়া : এক উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত এক নার্সকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে ধৃত যুবককে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল বাঁকুড়া জেলা আদালত। জানা যায় ধৃত ওই যুবকের নাম শ্যামল রায়। বয়স ২৮ বছর। বাড়ি বাঁকুড়ার ছাতনা থানার অন্তর্গত শালচুড়া গ্রামের হুচুক পাড়া এলাকায়। পুলিশ সূত্রে জানা যায় বুধবার দুপুরে স্থানীয় শালচুড়া গ্রামের বাসিন্দা শ্যামল রায় রক্ত পরীক্ষা করানোর নামে ঐ উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আসে। সেই উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসে একটি নার্সকে একা পেয়ে অভিযুক্ত শ্যামল রায় দরজা বন্ধ করে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। সেই সময় ওই নার্স চিৎকার করে কোনরকম দরজা খুলে বাইরে বেরিয়ে আসেন।

    নার্সের চিৎকারে অন্যান্য সহকর্মীরা ছুটে এলে অভিযুক্ত শ্যামল তৎক্ষণাৎ সেই এলাকা থেকে চম্পট দেয়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার বিকেল নাগাদ নার্সের তরফে ছাতনা থানায় পুরো বিষয়টি লিখিত আকারে জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

    আরও পড়ুনঃ ৫০তম বিবাহ বার্ষিকীতে শ্বশুর-শাশুড়ির ফের বিয়ে দিলেন গৃহবধূ!

    বেশি দেরি না করে দ্রুততার সাথে ছাতনা থানার পুলিশ সেই নার্সের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সন্ধ্যা নাগাদ অভিযুক্ত শ্যামল রায়কে তার গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে। ধৃত ওই যুবকের বিরুদ্ধে 353, 332, 325, 342, 354B, 376/511 ধারায় মামলা রুজু করে বাঁকুড়া ছাতনা থানার পুলিশ।

    আরও পড়ুনঃ কাঠের সেতু থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দামোদরের জলে পড়ল মারুতি ভ্যান!

    বৃহস্পতিবার ছাতনা থানার পুলিশের পক্ষ থেকে ধৃত ওই ব্যক্তিকে বাঁকুড়া জেলা আদালতে তোলা হয়। অন্যদিকে আদালতে নিগৃহীতা নার্সের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হয়। বিচারক অভিযুক্তের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

    JOYJIBAN GOSWAMI
    First published:

    Tags: Bankura

    পরবর্তী খবর