মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 17, 2017 06:55 PM IST
মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু
পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 17, 2017 06:55 PM IST

#রাজস্থান: নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে চুড়ান্ত পদক্ষেপ নিলেন ধর্মগুরু বাবা সন্তোষদাস ৷ অবৈধ যৌন সম্পর্কে লিপ্ত থাকার অভিযোগ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে নিজের পুরুষাঙ্গই কেটে ফেলেছেন রাজস্থানের চুরু জেলার বাসিন্দা এই জনপ্রিয় ধর্মগুরু ৷

রাজস্থানের চুরু জেলার তারানগরে নিজেরই তৈরি করা আশ্রমে থাকেন বাবা সন্তোষদাস ৷ আশ্রমের নাম হরিদাস ৷ সেখানে বাবার গুণমুগ্ধ ভক্তদের নিত্য আনাগোণা ৷ আসতেন বহু মহিলা ভক্তও ৷ সন্ধের পর মহিলা ভক্তদের যাতায়াত নিয়ে সন্দেহ জাগে এক ব্যক্তির মনে ৷

জানা গিয়েছে, জনপ্রিয় এই ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে যৌন সংসর্গের অভিযোগ এনেছেন পবন সিং নামে এক ব্যক্তি ৷ বলা হয়, আশ্রমে আসা মহিলাদের সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন বাবা সন্তোষদাস ৷

নিজের বিরুদ্ধে এরকম ঘৃণ্য অভিযোগ ওঠায় চুড়ান্ত অপমানিত বোধ করেন বাবাজী ৷ রাগে-অপমানে এমন পদক্ষেপ নেন যা কেউ ভাবতেও পারেনি ৷ নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে নিজেই ছুরি দিয়ে নিজের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেন ৷

এমন ঘটনায় হতচকিয়ে যায় তাঁর শিষ্যরা ৷ রক্তে ভরে যায় বাবার গোটা শরীর ৷ রক্তপাত বন্ধ না হওয়ায় বাবা সন্তোষদাসকে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় হাসপাতালে ৷ সেখানে রোগীর এমন অবস্থা দেখে তৎক্ষণাৎ জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয় ৷ অধিক রক্তপাত হওয়ায় তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে ৷

First published: 06:55:54 PM Oct 17, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर