• Home
  • »
  • News
  • »
  • astrology
  • »
  • ACCORDING TO HOROSCOPE THESE FOUR ZODIAC SIGNS ARE VERY PROUD AND SNOB SWD TC

দাম্ভিক আর নাক উঁচু! এই চার রাশির জাতক জাতিকাদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য এরকমই

দেখে নেওয়া যাক জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী এই চারটে রাশি কী কী!

দেখে নেওয়া যাক জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী এই চারটে রাশি কী কী!

  • Share this:

কয়েকটি রাশি আছে যার জাতক ও জাতিকারা সব সময় নিজেদের নিয়ে থাকতে ভালোবাসেন। এঁরা আত্মকেন্দ্রিক হন এবং নিজেদের রূপে মুগ্ধ হয়ে থাকেন। এঁরা মনে করেন যে সব কাজে এঁরাই সেরা এবং অন্যদের ছোট দেখিয়ে এঁরা খুব আনন্দ পান।

কিছু মানুষ থাকে যাঁরা মনে করেন যে এঁরা সবার চেয়ে আলাদা এবং অন্যদের চেয়ে শ্রেষ্ঠ। এঁরা উদ্ধত, নাক উঁচু, দাম্ভিক স্বভাবের হন। নিজেদের সেরা মনে করে বলেই এঁদের আত্মবিশ্বাস থাকে অত্যন্ত বেশি এবং এঁরা বাকি দুনিয়ার পরোয়া করেন না।

নিজেদের বিষয়ে এঁরা উচ্চ ধারণা পোষণ করেন এবং বাকিদের এঁরা গুরুত্ব দেন না। দেখে নেওয়া যাক জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী এই চারটে রাশি কী কী!

সিংহ (Leo): জুলাই ২৩ থেকে অগস্ট ২২

সিংহরাশি নিজেদের ভালোবাসেন। এঁরা অতি রকমের আত্মবিশ্বাসী এবং আত্মকেন্দ্রিক। এঁরা ভীষণ দাম্ভিক এবং আশেপাশের মানুষকে তুচ্ছ প্রতিপন্ন করা এঁদের স্বভাব। এঁরা ভাবেন যে এঁদের সবাই খুব ভালোবাসেন এবং সমাজে প্রত্যেকেই এঁদের মতো হতে চান।

Sagittarius ধনু (Sagittarius): নভেম্বর ২২ থেকে ডিসেম্বর ২১

ধনু রাশির জাতক-জাতিকারা মনে করেন এই বিশ্ব তাঁদের কেন্দ্র করেই ঘুরছে। এঁরা নিজেদের সব কিছু পছন্দ করেন। এমনকি নিজেদের দোষকেও এঁরা গুণ বলে মনে করেন। যার সঙ্গেই দেখা হোক না কেন, এঁরা ভাবেন যে সে প্রেমে পড়ে গিয়েছে। ধনু রাশি মনে করেন এঁরা অসম্ভব আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের মানুষ যাকে এড়িয়ে চলা যায় না।

Taurus

বৃষ (Taurus): এপ্রিল ২০ থেকে মে ২০

নিজেদের নানা রকম বিলাসিতা দিয়ে মুড়ে রাখতে ভালোবাসেন বৃষ রাশির মানুষেরা। এঁরা খুব নাক উঁচু স্বভাবের হন এবং নিজেদের শৌখিন স্বভাব পূর্ণ করতে অনেক দূর যেতে পারেন। এঁরা খুব উচ্চাকাঙ্ক্ষী হন। অন্যরা কী চান, সেটা এঁদের কাছে বড় বিষয় নয়, কিন্তু তাঁরা কী চান সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

মেষ (Aries): মার্চ ২১ থেকে এপ্রিল ১৯

মেষ রাশি শুধু নিজেকে নিয়েই ভাবনায় মশগুল থাকেন। এঁরা অনুভূতিহীন হন এবং খুব হিংসুটে স্বভাবের হন। অন্য কে কী ভাবছেন, সেটা এঁরা চট করে বুঝে ফেলেন এবং সহজেই সেটা এড়িয়ে যান।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: