কুম্বলে-কোহলির মধুচন্দ্রিমা শেষ হয় নিউজিল্যান্ড সিরিজেই

কুম্বলের পদত্যাগের পর ৪৮ ঘণ্টা পার। তবু বিতর্ক থামার নাম নেই ভারতীয় ক্রিকেটে।

Siddhartha Sarkar
Updated:Jun 29, 2017 02:23 PM IST
কুম্বলে-কোহলির মধুচন্দ্রিমা শেষ হয় নিউজিল্যান্ড সিরিজেই
Siddhartha Sarkar
Updated:Jun 29, 2017 02:23 PM IST

#মুম্বই: এক ট্যুইটে শুরু। আরেক ট্যুইটে শেষ। থুড়ি! ট্যুইটে নয়। ট্যুইট ডিলিটে। কিন্তু সত্যিই কি শেষ? কুম্বলের পদত্যাগের পর ৪৮ ঘণ্টা পার। তবু বিতর্ক থামার নাম নেই ভারতীয় ক্রিকেটে। ঠিক ৩৬৫ দিন আগে অ্যাপয়েন্টমেন্ট হয়েছিল জাম্বোর। তাঁকে স্যার সম্বোধন করে গদগদ ট্যুইটও করেছিলেন ক্যাপ্টেন কোহলি। কিন্তু মধুচন্দ্রিমা শেষ হয়ে যায় গতবছরের পুজো নাগাদ। মানে নিউজিল্যান্ড সিরিজেই।

ইংল্যান্ড সিরিজ থেকেই সম্পর্কটা তেঁতো। তখন থেকেই টিম মিটিংয়ে খটাখটি। কিন্তু সচিন-সৌরভদের উপদেষ্টা কমিটি কি কিছুই জানতেন না ? বোর্ডই বা কেন বেমালুম চুপচাপ ছিল এত দিন ? সৌরভরা সবই জানতেন। কুম্বলের কাছে কথাটা পেড়েও ছিলেন। কিন্তু গুরুত্ব দেননি জাম্বো। বারবার বলতেন, ছোটখাটো বিষয়। টপ টু বটম জেন্টলম্যান অনিল স্বপ্নেও ভাবেননি ছোট্ট চিড়টা একদিন প্রকাণ্ড খাদ হয়ে আলাদা করে দেবে কোচ আর অধিনায়কের পৃথিবী।

বোর্ডের কাছে মাইনে বাড়ানোর দাবিদাওয়াতেও মস্ত ভুল করে বসেন অনিল। নিজের জমানায় ক্রিকেটারদের সংস্থার স্বার্থে লড়তে বরাবর এগিয়ে যেতেন। এবারও বিরাটের জন্য সাড়ে পাঁচ কোটির চুক্তি চেয়ে বসেন। কোচের যুক্তি ছিল দলের ভালমন্দে সবার আগে জড়ায় ক্যাপ্টেনের নাম। তাই বাড়তি দায়বদ্ধতার পারিশ্রমিকও বেশি হওয়া উচিত। তত্ত্বটা বিরাটের পছন্দ হয়নি বলেই শোনা যায়। আর বোর্ডও কুম্বলের এই জঙ্গী ট্রেড ইউনিয়ন নেতার মানসিকতা ভালভাবে নেয়নি। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে কুম্বলের অর্ডারি টার্নারে হেরে বসে ভারত। পোস্ট-ম্যাচ মিডিয়ার সামনে দোষটা একা নিজের ঘাড়ে নেননি কোচ। এতে আরও চটে যান অধিনায়ক।

কুম্বলে-বিরাগ নিয়ে কোহলিকে আগাগোড়াই খোঁচাতেন শাস্ত্রী। আদালত যতই বিনোদ রাইদের হাতে রিমোট তুলে দিকে ভারতীয় ক্রিকেটে শ্রীনি-অনুরাগদের প্রভাব এখনও মুছে যায়নি। পর্দার আড়াল থেকে অনেকেই ইন্ধন দিচ্ছেন বিরাটকে। একবছর আগে শাস্ত্রীর বাড়া ভাতে ছাই দিয়েছিলেন সৌরভ। এবার আগেভাগেই গেয়ে রেখেছেন শাস্ত্রী। চাকরির গ্যারান্টি না পেলে কারও সামনে ইন্টারভিউ দেবেন না। ঝোপ বুঝে মুম্বাইয়া মিডিয়াকে খবরও খাওয়াচ্ছেন। বিরাটের ভোট। সঙ্গে বোর্ডের প্রচ্ছন্ন সমর্থন। শাস্ত্রীর এখন মওকা-মওকা। তাহলে কি আবার ফিরবেন ডিরেক্টর শাস্ত্রী ?

First published: 08:37:58 AM Jun 23, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर