Home /News /alipurduar /
Alipurduar News: জঙ্গল সংলগ্ন যে কোনও একটি রুট না খোলায় চিন্তিত পর্যটন ব্যবসায়ীরা

Alipurduar News: জঙ্গল সংলগ্ন যে কোনও একটি রুট না খোলায় চিন্তিত পর্যটন ব্যবসায়ীরা

title=

বর্ষার মরশুমে ভারতের অন্যান্য স্থানের মতো আলিপুরদুয়ার জেলার জাতীয় উদ্যান, সংরক্ষিত বনাঞ্চল বন্ধ রয়েছে।

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার: বর্ষার মরশুমে জঙ্গল বন্ধ থাকলেও একটি রুট খোলার আশ্বাস পেয়েছিলেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। জঙ্গল বন্ধের তিনমাস ব্যবসায় মন্দা যাবে না,আশা করেছিলেন তারা।

    কিন্তু গত ১৬ জুন থেকে তিনমাসের জন্য জাতীয় উদ‍্যান,সংরক্ষিত বনাঞ্চল বন্ধ হয়ে গেলেও খোলা হয়নি জঙ্গল সংলগ্ন একটিও রুট, অভিযোগ পর্যটন ব্যবসায়ীদের। যখন কোনও রুট না খোলার পরিকল্পনা প্রশাসনের রয়েছে,তখন জরুরি বৈঠক ডেকে মিথ্যে প্রতিশ্রুতি কেন দেওয়া হল তাদের।এই প্রশ্ন তুলেছেন পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা।

    বর্ষার এই সময় বন‍্যজন্তুদের প্রজননের সময়। যার কারণে এই তিন মাস পর্যটকদের জন‍্য জঙ্গল বন্ধ থাকে। সারা দেশের পাশাপাশি আলিপুরদুয়ার জেলার জলদাপাড়া জাতীয় উদ‍্যান ,বক্সা ব‍্যাঘ্র প্রকল্প তিন মাসের জন‍্য বন্ধ হয়েছে।

    আরও পড়ুন - চিতা বাঘের হানা আলিপুরদুয়ারের শিলবাড়িহাটে, আক্রমণে জখম ১০

    এদিকে জঙ্গলের যেকোনও একটি রুট খুলে দেওয়ার জন‍্য দাবী জানাল মাদারিহাট এলাকার পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা।

    পর্যটন ব‍্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে জঙ্গল বন্ধ হওয়ার দুদিন আগে মাদারিহাটে একটি বৈঠক হয়েছিল। যেখানে আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি দুই জেলার জেলাশাসক ছাড়াও বন দফতরের আধিকারিক, পর্যটন বিশেষজ্ঞ, পর্যটন ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। এই বৈঠকে পর্যটন ব্যবসায়ীদের প্রশাসনিক আধিকারিকরা আশ্বাস দিয়েছিলেন জঙ্গল বন্ধ থাকাকালীন জঙ্গলের লাগোয়া একটি রুট খোলা রাখা হবে।

    সেসময় মাদারিহাটের ট্রলি লাইনের রুটটি খোলার দাবি জানিয়েছিলেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। প্রশাসনের তরফেও বিষয়টি দেখার আশ্বাস মিলেছিল।কিন্তু জঙ্গল বন্ধ হতেই ট্রলি লাইনের রুটটি খোলা হবে না বলে প্রশাসন সূত্রে জানা যায়। মাদারিহাট এলাকার পর্যটন ব্যবসায়ীরা জানান, বর্ষার কারণে টোটোপাড়ার রাস্তা খারাপ হয়ে গেলে ট্রলি লাইনের রুটটি ব্যবহৃত হয়। এদিকে জঙ্গলের কোনও রুট খোলা থাকবে না জেনে পর্যটকরা আসছেন না। সমস্যায় পড়েছেন পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা।

    আরও পড়ুন - প্রবল বর্ষণেও থেমে নেই হাতির হানা,বক্সার জঙ্গল থেকে বেরিয়ে ২হাতির তাণ্ডব,আত‌ঙ্ক

    অন্যদিকে, তিন মাস জঙ্গল বন্ধ থাকলেও একটি রুট খোলা থাকবে জেনে খুশি ছিলেন গাড়ির চালকেরা। সংসারে অনটন থাকবে না,আশায় ছিলেন তারা। কিন্তু জঙ্গলের একটি রুট না খোলায় তাদের আশা নিরাশায় পরিণত হল। অনেকে নতুন গাড়ি কিনেছেন।কিস্তির টাকা দেবেন কিভাবে? এই চিন্তায় রয়েছেন তারা।

    জঙ্গল বন্ধ থাকাকালীন যেকোনও একটি রুট খোলার অনুমতি কি মিলবে প্রশাসনের তরফে। সেদিকেই তাকিয়ে পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত সকলে।

    অনন্যা দে

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Alipurduar

    পরবর্তী খবর