Home /News /alipurduar /
Alipurduar News: পেটে খাবার নেই! রাস্তার ধারে গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে বসে চা-শ্রমিকরা! কারণ জানলে চোখে জল আসবে!

Alipurduar News: পেটে খাবার নেই! রাস্তার ধারে গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে বসে চা-শ্রমিকরা! কারণ জানলে চোখে জল আসবে!

title=

Alipurduar News: দু'বেলা খাবার জোটানোর টাকা নেই! আয় সামান্য! তাই বলে গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে কেন রাস্তায় বসে আছেন চা শ্রমিকরা! চোখে জল আনবে ঘটনা!

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার:  রান্নার গ্যাসের দাম আকাশছোঁয়া। দুই-আড়াই হাজার টাকার মাসিক বেতন দিয়ে সিলিন্ডার ক্রয় করার সামর্থ নেই চা বাগান শ্রমিকদের।গ্যাস সিলিন্ডার কিনলে রান্না করার সবজি,মশলা কেনার টাকা হবে না।সংসার খরচ বাঁচাতে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিলেন বাগান শ্রমিকরা আলিপুরদুয়ারের কালচিনি চা বাগানের পাশ দিয়ে গেলে দেখা যাবে এক অন্যরকম ছবি।রাস্তার পাশে গ্যাস সিলিন্ডার,ওভেন নিয়ে বসে আছেন শ্রমিকরা। তাদের মুখে একটাই কথা চাই না গ্যাস সিলিন্ডার,চাইলে বিনে পয়সায় দিয়ে দেব এগুলি।

    প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা গ্যাস যোজনার পক্ষ থেকে চা বাগান শ্রমিকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল গ্যাস সিলিন্ডার, ওভেন।বর্তমানে গ্যাসের দাম ১১০০ টাকা।প্রতিমাসে ভর্তুকি মেলে ৩৩ টাকা।অর্থাৎ ১০৬৭ টাকা দিয়ে গ্যাস কিনতে রাজি নন বাগান শ্রমিকরা।কারণ চা বাগান শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি ২৩২ টাকা।মাসে পিএফ,গ‍্যাচুইটি কেটে হাতে টাকা আসে দুই থেকে আড়াই হাজার।শ্রমিকদের একটাই কথা ১০৬৭ টাকা দিয়ে গ্যাস সিলিন্ডার কিনলে চাল,তেল,মশলা,সবজি কেনার টাকা বাঁচবে না।সর্বোপরি সংসারের বাকি খরচের টাকা থাকবে না।তার থেকে গ্যাস সিলিন্ডার,ওভেন ঘরে না থাকা ভালো।

     আরও পড়ুন:  শুঁয়োপোকা দিয়ে তৈরি হচ্ছে চকোলেট! না জেনে খেয়ে নেননি তো? জানলে অবাক হবেন

    এই চা শ্রমিক পরিবারগুলির পরিস্থিতি শোচনীয়।প্রতি পরিবারে চার থেকে পাঁচজন সদস্য থাকে। যার মধ্যে একজন বাগানে শ্রমিকের কাজ করে বাকিরা হয়ত কোনও কাজ করেন না। কিছু ক্ষেত্রে শ্রমিক পরিবারের সন্তানর পরিচারিকা,দোকানে কাজ করে সংসার খরচ ওঠায়।মাঝপথে পড়াশুনো ছাড়তে হয় অনেককেই। অর্থনীতিবিদদের মতে,দুশো টাকায় গ্যাস মিলছে এই আশাতেই প্রথমে গ্যাস সিলিণ্ডার নিয়েছিলেন চা শ্রমিকরা।এখন মুল্যবৃদ্ধির কালে আর পেরে উঠছেন না তাঁরা।শুধু গ্যাসের নয় চাল,তেল,শাকসবজির দাম বেড়েছে।চা শ্রমিকদের রেশন ফ্রি-তে দেওয়া হয়না,হাসপাতাল পরিষেবাতেও ছাড় নেই। তাদের সত্যি করণীয় কিছু নেই। তাদের ক্ষোভের যথেষ্ট কারণ রয়েছে। অনেক প্রতিশ্রুতি বছরভর তাঁরা পান,কিন্তু কোনও প্রতিশ্রুতি ফলপ্রসূ হয়না। ক্ষুব্ধ হয়ে গ্যাস বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

    Annanya Dey

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Alipurduar, Alipurduar news

    পরবর্তী খবর