‘‘ বিজেপিতে পরিবারতন্ত্র নেই ’’: #AmitShahToNetwork18

Jan 30, 2017 01:12 PM IST | Updated on: Jan 30, 2017 01:25 PM IST

#নয়াদিল্লি: উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন আসন্ন ৷ দেশের রাজনীতিতে উত্তরপ্রদেশের ভূমিকা অপরিসীম ৷ এবার এই রাজ্যের মসনদে কে বসবেন ? তা জানতে অপেক্ষা আর কিছুদিনেরই ৷ এই সময় নির্বাচন নিয়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে সব রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যেই ৷ পিছিয়ে নেই বিজেপিও ৷ সপা-কংগ্রেসকে টেক্কা দিতে ভোট যুদ্ধের ময়দানে নেমে পড়েছে তারাও ৷ নেটওয়ার্ক ১৮-কে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বিরোধীদের কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি ৷

বিজেপি-র প্রধান দুই বিরোধী দল অবশ্যই কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টি ৷ সাক্ষাৎকারে অমিত শাহের কটাক্ষ সপা-কংগ্রেসের ‘ পরিবারতন্ত্র ’ নিয়েই ৷ তিনি বলেন, ‘‘ রাহুল গান্ধির যদি কোনও সন্তান হয় ৷ তাহলে এতে কোনও সন্দেহ নেই যে রাহুলের পর কে কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট হবেন ৷ কিন্তু বিজেপি-তে কেউ কখনও আন্দাজই করতে পারবে না, যে কে হবে পার্টির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ৷ এটাই বিজেপি-র সঙ্গে বাকি দলের পার্থক্য ৷ ’’

‘‘ বিজেপিতে পরিবারতন্ত্র নেই ’’: #AmitShahToNetwork18

Photo : Network 18 Creative

অমিত শাহ এদিন আরও বলেন, ‘‘ পরিবারতন্ত্রের উদাহরণ হল, মুলায়ম সিং যাদবের পর দলের বাকি সমস্ত নেতাদের বাদ দিয়েই অখিলেশ যাদব উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হন ৷ ফারুক আবদুল্লার পর তাঁর ছেলে মুখ্যমন্ত্রী হন ৷ এটাই হল পরিবারতন্ত্র ৷ জওহরলাল নেহেরু, ইন্দিরা গান্ধি, রাজীব গান্ধি, সনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধি এরা সবাই পরিবারবাদের অংশ ৷ কংগ্রেস-সপা দলের অন্য কোনও নেতাদের ছেলেমেয়েরা বড়জোর বিধায়ক বা সাংসদই হতে পারেন , মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার অধিকার তাঁদের নেই ৷ এই বিষয়টা কিন্তু বিজেপিতে একেবারেই নেই ৷ ’’

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES