ফের নতুন নির্দেশিকা জারি করল যোগী আদিত্যনাথ

Apr 21, 2017 10:12 AM IST | Updated on: Apr 21, 2017 10:12 AM IST

#লখনউ: গড়িতে লালবাতি নিষিদ্ধ হয়েছে ভারতে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পয়লা  মে থেকেই নতুন সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। গাড়িতে নীল আলো ব্যবহারেও রাশ টানা হচ্ছে। অ্যাম্বুলেন্স,  দমকলের মত জরুরি পরিষেরার সঙ্গে যুক্ত গাড়িতেই শুধুমাত্র নীল আলো লাগানো যাবে।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের পর আর সময় নষ্ট করতে চায়নি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তের দু’দিনের মাথায় গড়িতে লালবাতি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যোগী ৷ মধ্যরাত থেকেই এই নিয়ম কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি ৷ অথার্ৎ পয়লা মে নয়, শুক্রবার থেকেই উত্তরপ্রদেশে আর দেখা যাবে না লালবাতি গাড়ি ৷  অ্যাম্বুলেন্স, দমকলের মত জরুরি পরিষেরার ক্ষেত্রে অবশ্য এই নিয়ম লাগু হবে না ৷

ফের নতুন নির্দেশিকা জারি করল যোগী আদিত্যনাথ

যোগী জানান, মোদির এই সিদ্ধান্ত ভিআইপি কালচারকে শেষ করতে সাহায্য করবে ৷

লাল বেকন লাইটের যথেচ্ছ ব্যবহারের অভিযোগ নতুন নয়। শীর্ষ আদালতও লালবাতি  ব্যবহারকারীদের তালিকায় কাঁটছাটের সুপারিশ করেছিল। এবার লাল বাতিকেই নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র।  বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে,

লাল বাতিকে রেড সিগন্যাল ৷

- গাড়িতে লাল বাতি লাগান যাবে না

- আইনেও বদল আনা হচ্ছে

- ১লা মে থেকে এই নিয়ম কার্যকর হবে

- প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির গাড়িতেও লালবাতি নিষিদ্ধ

- নিষিদ্ধ সুপ্রিম কোর্ট বা হাইকোর্টের বিচারপতিদের গাড়িতেও

শুধু লাল বেকনই নয়। গাড়িতে নীল আলো ব্যবহারেও রাশ টানা হচ্ছে। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত গাড়িতে নীল আলো ৷  অ্যাম্বুলেন্স, দমকল ও পুলিশের গাড়িতে নীল আলো লাগান যাবে ৷

পয়লা মে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি থেকে শুরু করে দেশের প্রধান  বিচারপতি বা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কেউই গাড়িতে লাল আলো লাগাতে পারবেন না।

২০১৩ সুপ্রিম কোর্ট লাল বাতির ব্যবহারকে ক্ষমতা প্রদর্শনের মসতুল বলে  সমালোচনা করেছিল। সেদিক দিয়ে বিবেচনা করলে দেশে ক্ষমতা প্রদর্শনের পথ বন্ধ করল কেন্দ্রের এই  সিদ্ধান্ত।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES