শীতে কি কমে ডেঙ্গি-ম্যালেরিয়ার প্রকোপ? ঠান্ডার পথ চেয়ে স্বাস্থ্য ভবন, একাধিক পুরসভা ও গ্রাম পঞ্চায়েত।

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Nov 22, 2017 08:11 PM IST
শীতে কি কমে ডেঙ্গি-ম্যালেরিয়ার প্রকোপ? ঠান্ডার পথ চেয়ে স্বাস্থ্য ভবন, একাধিক পুরসভা ও গ্রাম পঞ্চায়েত।
Photo : AFP
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Nov 22, 2017 08:11 PM IST

#কলকাতা: ঠান্ডায় কি সত্যিই কমে ডেঙ্গি-ম্যালেরিয়ার প্রকোপ? আপাতত ঠান্ডার পথ চেয়ে স্বাস্থ্য ভবন, একাধিক পুরসভা ও গ্রাম পঞ্চায়েত। হেমন্তে অকালবর্ষণে আচমকাই ডেঙ্গির প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছিল রাজ্যে। তবে, নভেম্বরের কুড়ি তারিখ পেরোতে না পেরোতেই কলকাতা ও আশপাশের এলাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা একধাক্কায় নামল অনেকটাই। প্রশ্ন উঠছে ঠান্ডা কি এবছর লম্বা ইনিংসে খেলবে ?

আসি আসি করেই চলে যায় শীত। বেশ কয়েক বছর ধরে কলকাতা-সহ রাজ্যে কনকনে শীতের দাপট উধাও। তাপমাত্রা তেমন কমেই না। এবছর শীত আগেভাগে এলেও ডেঙ্গি,ম্যালেরিয়াকে পুরোপুরি নির্মূল করতে পারবে কি না, নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না চিকিৎসকরাও।

তাপমাত্রা কতটা নামলে তাকে শীত বলা যাবে? আবহবিদদের মতে, ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নীচে নামলে তবেই সেটা শীত। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তন বা বিশ্ব উষ্ণায়ণ বড় প্রভাব ফেলেছে আবহাওয়ায়। এখন কলকাতায় ডিসেম্বর-জানুয়ারি মিলিয়ে কুড়ি দিনের বেশি তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রির নীচে থাকে না। এর মাঝে তিন-চার দিনের জন্য ১১-১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছোঁয় ব্যারোমিটারের পারদ। বাকি সময়টা সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তাকে ১৬-১৯ ডিগ্রির মধ্যে। কখনও আবার ডিসেম্বর-জানুয়ারিতেও আপেক্ষিক আর্দ্রতা ৬০-৬৫ শতাংশ থাকায় মালুম হয় না উত্তুরে হাওয়ার দাপট। কলকাতার শীতের আবহাওয়া বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে,

শহরের গড় তাপমাত্রায় পরিবর্তন

২০০৬-২০১১ সাল

ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে কলকাতার গড় তাপমাত্রা ১৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ডিসেম্বরে পতঙ্গবাহিত রোগে আক্রান্ত রোগী ২৩১৭

জানুয়ারিতে পতঙ্গবাহিত রোগে আক্রান্ত রোগী ৭৪৫

ফেরুয়ারিতে পতঙ্গবাহিত রোগে আক্রান্ত রোগী ৯০০

তাহলে এবার কী হবে? ঠান্ডার দাপট কি মালুম হবে? কী বলছেন আবহবিদরা?

পতঙ্গবিদদের দাবি, শীতকালে মশা কামড়াবে না বা জীবাণুর বাড়বা়ন্ত কমবে এসব ভেবে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকলে বিপদ বাড়বে বই কমবে না। ডেঙ্গির মত পতঙ্গবাহিত রোগ আটকাতে সচেতনতাই আসল।

First published: 08:11:50 PM Nov 22, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर