আলোয়ারে গোরক্ষকরা কাউকে পিটিয়ে মারেনি, রাজ্যসভায় মন্তব্য নকভির

Apr 06, 2017 02:55 PM IST | Updated on: Apr 06, 2017 02:55 PM IST

#নয়াদিল্লি: গো-কাণ্ডের আঁচ এবার সংসদে। অসহিষ্ণুতা অভিযোগে ইতিমধ্যেই সরব বিরোধীরা। রাজস্থানের আলোয়ারে গোরক্ষকদের হাতে দুগ্ধ ব‍্যবসায়ীর হত‍্যার ঘটনায় উত্তাল হল সংসদ। বিরোধীদের বিক্ষোভে দফায় দফায় মুলতবি হল সংসদের উভয় কক্ষ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে ঘটনার রিপোর্ট চাইলেন রাজ‍্যসভার ডেপুটি চেয়ারম‍্যান। তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

গত শনিবার রাজস্থানের আলোয়ারে গোরক্ষদের হাতে আক্রান্ত হন পহেলু খান ও তার কয়েকজন সহযোগী। রাস্তাতেই বেধড়ক মারধর করা হয় তাদের। হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। পহেলুর বিরুদ্ধে গরু পাচারের অভিযোগ উঠেছিল । সংসদ শুরু হতেই বিষয়টি নিয়ে সরব হন কংগ্রেস সাংসদরা। কংগ্রেসের মধুসূদন মিস্ত্রি বলেন, ‘আলোয়ারে গোরক্ষকদের আক্রমণে মৃত্যু হয়েছে এক ব্যক্তির ৷’

আলোয়ারে গোরক্ষকরা কাউকে পিটিয়ে মারেনি, রাজ্যসভায় মন্তব্য নকভির

সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভি বলেন, ‘বাস্তবে ওরকম কিছু হয়নি ৷ রাজস্থান সরকার মিডিয়ার সংবাদ অস্বীকার করেছে ৷ এটি অত্যন্ত সংবেদনশীল বিষয় ৷ আমরা হিংসাকে মদত দিচ্ছি এমন বার্তা যেন না যায় ৷’

রাজ্যসভায় অস্বীকার করলেও পরে পিছু হটেন বিজেপি সাংসদ মুখতার আব্বাস নকভি। রাজস্থান সরকার ঘটনার তদন্ত করছে বলে মন্তব‍্য করেন তিনি। বলেন, ‘রাজ্য সরকার ব্যবস্থা নিচ্ছে ৷ এরকম হিংসাকে সমর্থন নয় ৷’ টুইটারে সরব হন কংগ্রেস সহ সভাপতি রাহুল গান্ধী। দাবি করেন কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের।

রমজানের জন্য প্রায় ১২ লিটার বেশি দুধের দরকার পড়ে। সেই বাড়তি চাহিদা মেটাতে গরু কিনতে গিয়েছিলেন পহেলু। তার কাছে ছিল বৈধ কাগজও। কিন্তু, তার কোনও কথাই শুনতে চায়নি হামলাকারীরা। অভিযোগ ছেলে ইরশাদের।

RECOMMENDED STORIES