ফোন বা মেসেজ করে আধারের তথ্য চাইলে সাবধান! সামনে হাজির বড় বিপদ

Jun 25, 2017 03:27 PM IST | Updated on: Jun 25, 2017 03:27 PM IST

#কলকাতা: আধার কার্ডের ১২টি অনন্য নম্বর যে কোনও নাগরিকের কাছেই মূল্যবান ৷ আধারের ওই ১২টি নম্বরের মাধ্যমেই এখন নির্ধারিত হয় ভারতীয়দের পরিচয় ৷ এই ১২টি নম্বরই ডেকে আনছে আপনার বিপদ!

সরকারি প্রকল্প সহ একের পর এক ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই বাধ্যতামূলক আধার কার্ড ৷ প্যান কার্ড, আয়কর রিটার্ন দাখিল করার সময় আধার নম্বর দেওয়া যেমন বাধ্যতামূলক ৷ তেমনই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতেও দরকার আধার ৷ ড্রাইভিং লাইসেন্স, মোবাইল পরিষেবা, বোর্ডের পরীক্ষায়, কেরোসিন ভতুর্কি থেকে পেনশন প্রতি ক্ষেত্রেই বাধ্যতামূলক আধার কার্ড ৷ এমতাবস্থায় সরকারি নির্দেশের বাহানায় আপনার আধার নম্বর জেনে নিয়ে পথে বসানোর পরিকল্পনা করেছে এক দল প্রতারক ৷

ফোন বা মেসেজ করে আধারের তথ্য চাইলে সাবধান! সামনে হাজির বড় বিপদ

৩০ জুনের মধ্যে মোবাইল নম্বরের সঙ্গে আধার কার্ড সংযুক্ত না করলে মিলবে না মোবাইল পরিষেবা ৷ অনেক আগেই এই নির্দেশ জারি করেছে কেন্দ্র ৷ এই সংযুক্তিকরণের পথেই চলছে ঠকানো ৷ সম্প্রতি সামনে এসেছে এমন কিছু ঘটনা ৷

গ্রাহকদের মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারের নাম করে ফোন করে বা মেসেজের মাধ্যমে আধার নম্বর চাওয়া হচ্ছে ৷ বলা হচ্ছে ফোন নম্বরের সঙ্গে আধার যুক্ত না করলে বন্ধ হয়ে যাবে কানেকশন ৷ ভয় পেয়ে গ্রাহকেরা নম্বর বলতেই তাদের মোবাইলে আসছে একটি OTP বা ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড ৷ সিকিউরিটি চেকিংয়ের নাম করে সেই পাসওয়ার্ড জানতে চাইছে প্রতারক ৷ পাসওয়ার্ড জানানো মাত্রই সর্বনাশ! গ্রাহকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে সর্বস্ব ৷

সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, আধার নম্বরে বিপদ নয় ৷ বিপদ লুকিয়ে ওই ওটিপিতে ৷ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতে দরকার আধার ৷ প্রত্যেক ভারতীয়ের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যুক্ত আধর নম্বর ৷ সেই আধার নম্বর আর OTP জেনে নিয়ে আধারের সঙ্গে যুক্ত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সব হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক হ্যাকাররা ৷

অন্যদিকে, আধার তথ্য ফাঁসের পর এমন প্রতারণার খবর সামনে আসতে উদ্বিগ্ন আধার: ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা UIDAI ৷ এই সংস্থার সিইও এমন ফোন কল এবং মেসেজের উত্তর না দিতে অনুরোধ করেছেন ৷ একইসঙ্গে তাঁর অনুরোধ কোনও ফোনে বিশ্বাস না করে মোবাইল সার্ভিস অপারেটরের আউটলেটে গিয়ে আধার নম্বর নথিভুক্ত করুন ৷ আর বাকি সরকারি প্রকল্পের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র ওই প্রকল্পের সরকারি ওয়েবসাইটে গিয়ে আধার নম্বর যুক্ত করুন ৷

অতএব আধার নম্বর জানতে চেয়ে এমন ভুয়ো ফোন কল বা মেসেজ এলে সাবধান!

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES