আজকের খবরের কাগজের সেরা খবর

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 02, 2017 09:57 AM IST
আজকের খবরের কাগজের সেরা খবর
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 02, 2017 09:57 AM IST

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ বৃহস্পতিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

১) চিঠি, প্যাডে মমতার ছবি দিলেই জেল

আর বকাঝকা বা সতর্ক করা নয়। লেটার হেডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ছেপে প্রশাসনে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করলে এ বার সোজা এফআইআর দায়ের করবে দল। যেতে হবে শ্রীঘরে। ছাড় নেই কারওরই। তা তিনি তৃণমূলের যত বড় নেতাই হোন না কেন! বুধবার কালীঘাটে তাঁর বাড়িতে তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠক ডেকেছিলেন নেত্রী। সেখানেই পষ্টাপষ্টি দলের নেতাদের এ কথা জানিয়ে দিলেন তিনি। সেই সঙ্গে বলে দেন, ‘‘একটা কথা সবাই সাফ বুঝে নিন। লোভীদের এ দলে আর স্থান হবে না।’’ সূত্রের খবর, দলের সর্বস্তরের নেতাদের বিবিধ বিষয়ে সমঝে দেওয়ার মেজাজেই এ দিন ছিলেন মমতা। বাঁকুড়ার জেলা সভাপতি অরূপ খাঁকে যেমন বলে দেন, ‘‘এখনও সব ব্লক কমিটি তৈরি করতে পারেননি। আপনি কেন জেলার সভাপতি থাকবেন?’’

২) বিজেপি নেত্রীর ১২ দিন পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ, সাধু বেশে জুহি লাভ সিআইডি-র

বেপাত্তা নেত্রীর খোঁজে কখনও তাঁরা নিয়েছেন ভিখারির ছদ্মবেশ। কখনও গেরুয়া পরে দোতারা হাতে গান গেয়ে পথে পথে ঘুরেছেন। এই ভাবেই শেষ পর্যন্ত সাফল্য এল সিআইডি-র। মঙ্গলবার রাতে নেপাল সীমান্তের খড়িবাড়ি এলাকা থেকে গোয়েন্দারা গ্রেফতার করলেন শিশু পাচার কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত জুহি চৌধুরীকে। বুধবার তাঁকে জলপাইগুড়ি জেলা আদালতে তোলা হয়। বিচারক জুহিকে ১২ দিন পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। কী ভাবে ধরা পড়লেন জুহি? গোয়েন্দারা যে গল্প শুনিয়েছেন, তা অনেক রহস্য রোমাঞ্চ কাহিনিকে হার মানায়। অনেকেই যে কাহিনির সঙ্গে তুলনা টেনেছেন ‘জয়বাবা ফেলুনাথ’-এর। সেখানে নকল মছলিবাবা সেজে মগনলালকে পাকড়াও করেছিল ফেলুদা। এখানেও তেমনই সাধু সেজে ঘুরতে হয়েছে গোয়েন্দাদের।

৩) প্ল্যাটফর্মে বচসার পরে হাত ধরে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দম্পতির

দৃশ্য এক: বিকেল সাড়ে পাঁচটা, বেলুড় স্টেশনের দু’নম্বর প্ল্যাটফর্মে পায়চারি করতে করতে মোবাইলে কথা বলছিলেন এক যুবক। হঠাৎ পিছন থেকে এক তরুণী এসে মোবাইল কেড়ে নিলেন। দু’জনের মধ্যে বচসা শুরু হল। প্রথমে দাঁড়িয়েই চলছিল কথা কাটাকাটি। একটু পরে প্ল্যাটফর্মের বেঞ্চে বসে পড়লেন তাঁরা। কিন্তু থামল না বচসা। বসেও তাঁদের মধ্যে ঝগড়া হচ্ছিল। তার মধ্যে স্টেশনে ঢুকল আপ বর্ধমান গ্যালপিং লোকাল ট্রেন। বেঞ্চে বসে থাকা ওই তরুণী আচমকা ট্রেনের দিকে ছুটতে শুরু করলেন। তাঁকে ছুটতে দেখে, তাঁর হাত ধরে ছুটতে শুরু করলেন ওই যুবকও। মুহূর্তের মধ্যে হাতে হাত ধরে চলন্ত ট্রেনের সামনে দু’জন একসঙ্গে ঝাঁপ দিলেন।

৪) মোবাইলে মাধ্যমিকের প্রশ্ন

পরীক্ষা সবে শুরু হবে। অনেক স্কুলেই ক্লাসে ঢুকে গিয়েছে ছাত্রছাত্রীরা। শিক্ষকেরা প্রশ্নপত্র বিলির তোড়জোড় শুরু করেছেন। হঠাৎ, বাইরে অভিভাবকদের কয়েকজনের মোবাইলে হোয়াট্সঅ্যাপে পৌঁছে গেল প্রশ্নপত্রের পাতার ছবি। দ্রুত ছড়িয়ে পড়ল সর্বত্র। তবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের দাবি, প্রশ্ন ফাঁস হয়নি। পৌনে একটা নাগাদ প্রশ্নপত্র বাইরে আসে। তাই সেই প্রশ্নপত্র কোনও ভাবেই পরীক্ষার্থীদের হাতে আসা সম্ভব নয়। তবে অনেকেই দাবি করেছেন, পরীক্ষা শুরুর অনেক আগে, সাড়ে এগারোটার সামান্য পরেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের টিচার্স এলিজিবিলিটি টেস্ট বা টেট–এ প্রশ্ন ফাঁসের মতো একই ভাবে হোয়াট্সঅ্যাপের মাধ্যমে মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বাইরে চলে আসার ঘটনা ঘটল। ২০১৫ সালের অক্টোবরের পর ২০১৭ সালের মার্চ ফের প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ।

bartaman_big11

১) সন্ন্যাসী সেজেই সিআইডি গ্রেপ্তার করে জুহিকে

শিশু পাচারকাণ্ডে নাম উঠে আসা বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরিকে গ্রেপ্তার করতে রীতিমতো সন্ন্যাসী সাজতে হয়েছিল সিআইডি’র দুই ইনসপেক্টরকে। গ্রামের মানুষের মন জয় করতে ধর্মের মাহাত্ম্যও প্রচার করতে হয়েছে ইনসপেক্টর সৌগত ঘোষ ও কাকলি ঘোষ কুণ্ডুকে। গ্রামের কোথায় ক’টি ধর্মস্থান রয়েছে, সেগুলির অবস্থা কী রকম, তা নিয়ে তথ্যও নিয়েছেন গ্রামবাসীদের কাছে। তাঁদের শুনিয়েছেন, এগুলির সংস্কারের জন্য অর্থ দেবে সরকার। সরকারের প্রতিনিধি হিসাবেই তাঁরা এখানে এসেছেন। তাঁদের পাঠানো তালিকার ভিত্তিতেই আসবে আর্থিক অনুদান। সামান্য কয়েকদিনেই সিআইডি কর্তারা মন জয় করে ফেলেছিলেন গ্রামবাসীদের। আর তার আড়ালেই তাঁরা যে বিজেপি নেত্রীর জুহির জন্য ওতপেতে বসে রয়েছেন, তা ঘুণাক্ষরেও কেউ বুঝতে পারেননি।

২) ১ কোটি টাকা মাথার দামের মাওবাদী নেতা আকাশ প্রায় নাগালে

দুই রাজ্য বাংলা ও ঝাড়খণ্ড মিলিয়ে মাথার দাম এক কোটি টাকা। খুন, নাশকতা, সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস আর রাষ্ট্রদ্রোহিতার বিস্তর অভিযোগে গত চার বছর ধরে তাঁকে হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ। কয়েকবার নাগালে পাওয়া গেলেও, জাল কেটে বেরিয়ে গিয়েছে এই মাওবাদী জঙ্গি। এহেন হাইপ্রোফাইল গেরিলা নেতা আকাশ ওরফে অসীম মণ্ডলকে দলবল সমেত পাকড়াও করতে রবিবার থেকে একযোগে অভিযান শুরু করেছে বাংলা এবং ঝাড়খণ্ড পুলিশ। ২০১৩ সালের গোড়ার দিক থেকে আকাশ মাওবাদীদের এ রাজ্যের স্টেট অর্গানাইজিং কমিটির সম্পাদকও বটে। এ রাজ্যের পুলিশের সঙ্গে এই অভিযানে অংশ নিয়েছে পূর্ব সিংভূম, জামশেদপুর পুলিশ এবং সিআরপি

৩) আমি নিজে দেখছি, যা করার প্রশাসন করবে, হাসপাতালের ব্যাপারে অতি সক্রিয়তা বরদাস্ত নয়: মমতা

অভিযোগ উঠলে প্রশাসনকে জানান।’ মদন মিত্রের নাম উচ্চারণ না করলেও বার্তাটা স্পষ্ট। বেসরকারি হাসপাতালের রাশ শুধুমাত্র তাঁরই হাতে থাকবে। এই নিয়ে অতিসক্রিয়তার কোনও জায়গা নেই। বুধবার কালীঘাটে নিজের বাসভবনে তৃণমূলের কোর কমিটির বর্ধিত সভায় দলীয় নেতাকর্মীদের এই বলে সতর্ক করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী শুক্রবার বিধানসভায় বেসরকারি হাসপাতাল নিয়ন্ত্রণে বিল আনতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোম সম্পর্কে ওঠা অস্বচ্ছতার অভিযোগ ঘিরে বিক্ষোভ বা আন্দোলন নয়, আইনের বাঁধনে কঠোর প্রশাসনিক পদক্ষেপ কার্যকর করাকেই অগ্রাধিকার দিতে চান তিনি। চিকিৎসাক্ষেত্রের এই স্পর্শকাতর বিষয়টি যে তিনি একা হাতেই সামলাবেন, এদিন সেটাও মমতা অকপটে বুঝিয়ে দিয়েছেন দলের সর্বস্তরের নেতৃত্বকে। তাঁর সাফ নির্দেশ, এই বিষয়ে দল যেন না জড়ায়।

৪) শহিদের মেয়ে গুরমেহরের পাশে এবার দাঁড়ালেন বিদ্যা বালন, বিতর্ক চলছেই

কারগিল যুদ্ধে শহিদের মেয়ে গুরমেহর কাউর ইস্যুতে এবার সরব অভিনেত্রী বিদ্যা বালনও। তাঁর বক্তব্য, প্রতিটি মানুষের মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। প্রত্যেকের অন্যের বক্তব্যকে সম্মান জানানো উচিত। লেডি শ্রীরাম কলেজের ছাত্রী গুরমেহর কাউর অবশ্য ইতিমধ্যেই নিজের অবস্থান থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের (এবিভিপি) বিরুদ্ধে প্রচার থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়ে গুরমেহর বলেছেন, ভবিষ্যতে কোনও মন্তব্য করার আগে দু’বার ভাববেন।

First published: 09:57:40 AM Mar 02, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर