যুব তৃণমূলের সভায় মুকুলকে ‘গদ্দার’ বলে কটাক্ষ, অনুপস্থিত  মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Nov 13, 2017 07:23 PM IST
যুব তৃণমূলের সভায় মুকুলকে ‘গদ্দার’ বলে কটাক্ষ, অনুপস্থিত  মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু
তৃণমূলের প্রতিবাদ সভা
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Nov 13, 2017 07:23 PM IST

 #কলকাতা: বিজেপির পাল্টা সভা যুব তৃণমূলের। আক্রমণের লক্ষ্য মুকুল হলেও, দলের দুই শীর্ষ নেতার ভাষণে উপেক্ষিতই থাকলেন তিনি। বরং একসময়ের ঘনিষ্ঠতা সুর চড়ালেন। তবে এর মধ্যেই মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশুর সভায় যোগ না দেওয়া নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

বিজেপি নয়, এযেন মুকুলের পাল্টা সভা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের। আর শক্তি পরীক্ষায় নেমেও মুকুলের নামই নিলেন না শীর্ষ তৃণমূল নেতৃত্ব। সুরটা বেঁধে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। সেই পথে হেঁটেই সোমবার অপেক্ষাকৃত মাঝারি নেতাদের দিয়ে মুকুলকে আক্রমণের কৌশল নিল তৃণমূল। রানি রাসমণি রোডের সভায় মুকুলকে নিয়ে সবথেকে বেশি আক্রমণাত্মক ছিলেন ভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং ৷

মুকুলকে ‘গদ্দার’ বলে কটাক্ষ অর্জুনের ৷ তিনি বলেন,‘আপনার সাহস থাকলে পুরভোটে দাঁড়ান ৷ সেখানেও আপনাকে হারিয়ে দেব ৷ ৭৭ হাজার বুথ দূরের কথা ৷ কাঁচরাপাড়ার ৭টি বুথে এজেন্ট দিয়ে দেখান ৷ রাজনীতি করা ছেড়ে দেব ৷’

রানি রাসমণি রোডে যুব তৃণমূলের জনসভায় ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও ফিরহাদ হাকিমরা। যদিও এদিনের জনসভায় মুকুলকে নিয়ে একটি কথাও খরচ করেননি শীর্ষ তৃণমূল নেতৃত্ব। বিজেপির পরিবর্তনের ডাককে এদিন কটাক্ষ করেন ফিরহাদ হাকিম।

তিনি বলেন, ‘যাঁরা বলছেন নতুন করে পরিবর্তন আনবেন ৷ মানুষের বিশ্বাস অর্জন করা এত সহজ নয় ৷ মান্নাকণ্ঠী, কিশোরকণ্ঠী অনেকে হয় কিন্তু মান্না দে, কিশোর কুমার একজনই হয় ৷ তেমনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজনই ৷ বাংলার মাটিকে চিনুন ৷ এখানে মানি-পাওয়ার চলে না ৷ দেশে বিজেপিমুক্ত করতে হবে ৷ বিজেপি-র বিরুদ্ধে লড়তে হবে ৷ বিজেপি হঠাও দেশ বাঁচাও ৷’

যুব তৃণমূলের সভায় আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়কে। এদিনের সভায় আসেননি মুকুল পুত্র। শুভ্রাংশুর অনুপস্থিতিতে জল্পনা শুরু হয়েছে।

First published: 07:23:25 PM Nov 13, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर