জানেন ভূমিকম্পে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে কোন জায়গা ?

Aug 10, 2017 11:54 AM IST | Updated on: Aug 10, 2017 11:54 AM IST

#নয়াদিল্লি: সিসমিক জোনের মধ্যে পড়েছে ভারতে ২৯টি শহর ও শহরতলি ৷ অথার্ৎ তীব্র থেকে অতিতীব্র ভূমিকম্পে বড়সড় বিপর্যয়ের মুখে পড়তে পারে এই ২৯টি জায়গা ৷ সম্প্রতি এমনটাই জানানো হয়েছে ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমিওলজির তরফে ৷ এর মধ্যে বেশিরভাগ জায়গা হিমালয় জোনের মধ্যে পড়েছে ৷

দেশের বিভিন্ন ভূমিকম্পের প্রবণতা অনুযায়ী জোন II থেকে V-এর মধ্যে ভাগ করা হয়েছে ৷ সবচেয়ে বিপজ্জনক জোন হচ্ছে V ও 4 ৷ রাজধানী দিল্লি জোন 4 এর মধ্যে পড়ে যেখানে রিকটারে স্কেলে ভূমিকম্পের তীব্রতা ৪ পর্যন্ত উঠতে পারে ৷

জানেন ভূমিকম্পে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে কোন জায়গা ?

রাজধানী আশপাশের এলাকায় একাধিক ভূমিকম্প হয়েছে ৷ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে ভূমিকম্পের প্রভাব কমাতে দিল্লির রাস্তার মাটিক খুঁড়ে তার পরীক্ষা করা হয়েছে ৷ জানা গিয়েছে কোন এলাকা সবচেয়ে বিপজ্জনক ৷ জমুনানগর -সহ তিনটি এলকা সব থেকে বিপজ্জনক ৷ এছাড়াও লিস্টের মধ্যে রয়েছে পূর্ব দিল্লি, ময়ূর বিহার, লক্ষীনগর ৷ এই রিপোর্ট আবহাওয়া দফতর ও ভূ-বিজ্ঞান দফতরের ৪০ আধিকারিক মিলে বানিয়েছেন ৷

মাটির নমুনা পরীক্ষা করার জন্য প্রায় ৫০০ জায়গায় ৩০ মিটার পর্যন্ত ড্রিলিং করা হয়েছে ৷ এতে মাটির ক্ষমতা কতটা তা জানা যাবে ৷

দিল্লির পাশাপাশি কলকাতা ও বেঙ্গালুরুতেও এই পরীক্ষা করা হয়েছে ৷ ভূমিকম্পে বাড়ি ভেঙে যাওয়া অনেকটা মাটির উপর নির্ভর করে ৷ বলা হয়েছে যে মাটি বেশি জল শুষে নেয় সেই মাটির উপর বানানো বাড়ি ভেঙে পড়ার প্রবণতা বেশি থাকে ৷ কারণ ভূমিকম্পের সময় মাটি আলগা হয়ে যায় ৷

সিসমিক জোনের মধ্যে পড়েছে যে ২৯টি শহর তার মধ্যে রয়েছে দেশের রাজধানী নয়াদিল্লি ৷ এছাড়া রয়েছে পটনা(বিহার), শ্রীনগর (জম্মু ও কাশ্মীর), কোহিমা (নাগাল্যান্ড), পুদুচেরি, গুয়াহাটি (অসম), গ্যাংটক (সিকিম), সিমলা (হিমাচল প্রদেশে), দেরাদুন (উত্তরাখণ্ড), ইম্ফল (মণিপুর) ও চণ্ডিগড় ৷ প্রত্যেকটি শহরের মোট জনসংখ্যা প্রায় ৩ কোটি ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES