খুনের সময় স্বামীর শেষ আর্তনাদ শুনতে চেয়ে প্রেমিকের কাছে আবদার স্ত্রীর !

May 19, 2017 06:20 PM IST | Updated on: May 20, 2017 08:19 PM IST

#কলকাতা: ঠান্ডা মাথায় প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুনের ছক। একেবারে পরিকল্পনামাফিক স্বামী অজিতকে খুনের ঘুঁটি সাজিয়েছিল স্ত্রী মনুয়া। প্রেমিক অজিতকে নিজেদের ফাঁকা ফ্ল্যাটে ঢুকিয়ে বাইরে থেকে তালাবন্ধ করে চলে যায় মনুয়া। এখানেই শেষ নয়, খুন হওয়ার আগে স্বামী অনুপমের অন্তিম চিৎকার শুনতে চেয়ে প্রেমিকের কাছে আবদারও করেছিল সে। শেষরক্ষা অবশ্য হয়নি। আপাতত শ্রীঘরে বারাসতের মনুয়া ও তার প্রেমিক অজিত।

লাভ ম্যারেজ। বারাসতে ভ্রমণ সংস্থার কর্মী অনুপম সিংহের সঙ্গে পুরসভার অস্থায়ী কর্মী মনুয়ার দাম্পত্য জীবন বছর দেড়েকের। বিয়ের পর থেকে ঝগড়া-ঝাঁটি? অশান্তি ? না, পরিবারের কেউই শোনেননি। পাড়ার লোকেও টের পায়নি। পাটায়া গিয়ে হানিমুন। ফ্রেমবন্দি রোম্যান্স। সবই তো দিব্য ছিল।

খুনের সময় স্বামীর শেষ আর্তনাদ শুনতে চেয়ে প্রেমিকের কাছে আবদার স্ত্রীর !

তাহলে কী এমন হল যে অনুপমকে সরিয়ে ফেলতে মরিয়া হয়ে উঠল মনুয়া ? ১৩ মে হৃদয়পুরের ফ্ল্যাট সিংহ ভিলা থেকে অনুপমের দেহ উদ্ধার হয়। খুনের অভিযোগে, মনুয়া ও তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক অজিতকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ছাত্রজীবনে অজিতের সঙ্গে আলাপ মনুয়ার। কিন্তু তা বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি। সেই রাগ থেকেই কি স্বামীকে খুনের ছক?

২ মে খুনের দিন দুপুর থেকে অজিতের সঙ্গে সিংহ ভিলাতেই ছিল মনুয়া। স্বামীকে ফ্ল্যাটে আসতে বলে বিকেল চারটে নাগাদ বেরিয়ে যায় সে। ফ্ল্যাটেই লুকিয়ে থাকে অজিত । মনুয়া ফোনে তাকে স্বামীর গতিবিধি জানাতে থাকে । এদিন সকালে হাবরা থেকে লোহার রড কেনে অজিত। অনুপম ফ্ল্যাটে ঢুকতেই রড দিয়ে মাথায় পরপর আঘাত করে অজিত। মনুয়ার কথামতো ফোন ধরে রাখে সে। স্বামীর মৃত্যুকালীন যন্ত্রণার চিৎকার শুনতে চায় মনুয়া। মৃত্যু নিশ্চিত করতে হাতের শিরাও কেটে দেয় অজিত।

পুলিশ সূত্রে খবর, অনুপমকে খুনের কয়েকদিন পরে দক্ষিণেশ্বরে প্রেমিকের সঙ্গে যায় মনুয়া। তথ্যপ্রমাণ লোপাটে গঙ্গায় নিজের দু’টি মোবাইল ফেলে দেয় অজিত। শুক্রবার তাকে নিয়ে নৃশংস খুনের পুনর্নির্মাণের জন্য যায় পুলিশ। যদিও স্থানীয়দের বিক্ষোভে তা সম্ভব হয়নি।

যেভাবে স্বামীকে পরিকল্পনা করে প্রেমিকের সঙ্গে খুনের ছক কষে স্ত্রী, তাতে আক্রোশ স্পষ্ট। জেরার মুখে অজিত ভেঙে পড়লেও নিরুত্তাপ মনুয়া। স্বামীর উপর কীসের এত রাগ জমেছিল মনুয়ার? কেনই বা এত নিষ্ঠুর পরিকল্পনা? তা নিয়ে ধোঁয়াশায় পুলিশ। কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেরার মুখে অজিত ভেঙে পড়লেও মনুয়া অবিচল। স্বামীকে সরিয়ে ফেলতে কেন এত মরিয়া ছিল সে? কেনই বা এত নৃশংসতা ? উত্তর খুঁজছে পুলিশ।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES