চুল কেটে নেওয়ায় অপমানে আত্মঘাতী মহিলা

Apr 26, 2017 07:29 PM IST | Updated on: Apr 26, 2017 07:52 PM IST

#হাবড়া: বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের জের মারধর করে চুল কেটে নেওয়ার অপমানে আত্মঘাতী হলেন এক মহিলা । । ঘটনাটি হাবড়া থানার সলুয়া তিন নম্বর এলাকার । আত্মঘাতী মহিলার নাম মমতা বিশ্বাস (২৬) ৷ নিজের মামার ছেলের রাজদীপ ব্রম্য ১৬ সাথে অবৈর্ধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।

রাজদীপ মছলন্দপুরের বাইগাছি কাশিবালা বিদ্যালয়ের একাদশ শ্রেণীর ছাএ। এবং এই নিয়ে দুই পরিবারের ভেতর বেশ কিছুদিন ধরে চরম অশান্তি চলছিল। দুজনে মিলে রবিবার বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায় সুখে সংসার করবে বলে। সোমবার রাত একটা নাগাদ রাজদীপের বাবা তপন ব্রহ্ম জানতে পারে, ছেলে ও ওই মহিলা দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার একটি জায়গায় আছে  ৷

চুল কেটে নেওয়ায় অপমানে আত্মঘাতী মহিলা

সেখান থেকে তাদের ভুল বুঝিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসা হয় ৷ তারপরে বেধড়ক মারধর করে মহিলাকে এবং মাটিতে ফেলে পেটে লাথি মারে তপন ব্রহ্ম ও তার পরিবার ৷ এতেই শেষ নয়, মহিলার সামনের থেকে মাথার চুল কেটে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মহিলার স্বামী বিশ্বজিৎ বিশ্বাস।

মহিলার স্বামী আরও জানান, যে তার স্ত্রী তাঁকে বলেছিল আর কোনদিন এরকম কাজ করবে না সে মন দিয়ে সংসার করতে চায় । বুধবার সকালে ঘর ফাঁকা থাকার সুযোগ নিয়ে নিজের ঘরে শাড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। এলাকার লোকের চেষ্টায় হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে মৃত বলে ঘোষণা করে।

মহিলার স্বামীর অভিযোগ, ওই অপমান সহ্য করতে না পেরে আত্মঘাতী হয়। বিশ্বজিৎ বাবু দোষীদের  শাস্তির দাবী জানান। দেহ ময়নাতদন্ত করার জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES