রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতির জন্য DVC-র জলাধারগুলির সংস্কারে কেন্দ্রের অবহেলাকেই দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jul 29, 2017 10:21 AM IST
রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতির জন্য DVC-র জলাধারগুলির সংস্কারে কেন্দ্রের অবহেলাকেই দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jul 29, 2017 10:21 AM IST

#কলকাতা: দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে পলি জমেছে দামোদরে। তাই জলধারণ ক্ষমাও করছে। আর তার জেরেই বর্ষায় DVC-র ছাড়া অতিরিক্ত জলে ভাসছে বর্ধমান, হাওড়া, হুগলি। বারবার দরবার করেও কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য মেলেনি। তাই এবার DVC-র খালগুলি সংস্কারে হাত লাগাবে রাজ্য। আগামী বছর থেকে কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সেচমন্ত্রী।

লাগাতার বৃষ্টি। সঙ্গে DVC জল ছাড়ার মাত্রা। দুইয়ের স্রোতে ভাসছে বর্ধমান, হাওড়া, হুগলির বিস্তীর্ণ এলাকা। ম্যান মেইড ফ্লাড। রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতির জন্য DVC-র জলাধারগুলির সংস্কারে কেন্দ্রের অবহেলাকেই দায়ী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে দামোদর নদে পলি জমেছে। যার জেরে DVC-র জলাধারগুলির ধারণ ক্ষমতা কমেছে প্রায় পঁয়তিরিশ শতাংশ। এই বাড়তি চাপই ভাসাচ্ছে একের পর এক জেলা। উদাসীন কেন্দ্র। তাই বিশ্ব ব্যাঙ্কের আর্থিক সহযোগিতায় DVC-র সেচ খালগুলি সংস্কারে হাত দিচ্ছে রাজ্য।

ডিভিসির সেচ খাল

- দুর্গাপুর ব্যারাজের দু'পাশে ডিভিসির ২টি সেচ খাল রয়েছে

- দামোদরের ডান পাশে বাঁকুড়ার দিকে রয়েছে (একটি) সেচ খাল

- এই খাল বাঁকুড়ার বড়জোড়া, সোনামুখি, পত্রসায়র এবং পূর্ব বর্ধমানের খন্ডঘোষ, রায়না ও জামালপুর হয়ে মুণ্ডেশ্বরী নদীতে মিশেছে

- খালের দৈর্ঘ প্রায় ১৩৬.৮ কিলোমিটার

- দামোদরের বাঁ পাশে বর্ধমানের দিকে (রয়েছে) অন্য একটি সেচ খাল

- এই খাল কাঁকসা, গলসি হয়ে হুগলির ত্রিবেনীতে গিয়ে গঙ্গায় মিশেছে

- এই খালের দৈর্ঘ প্রায় ৮৮.৫ কিলোমিটার

- প্রধান খালের সঙ্গে শাখা খালগুলি যোগ করলে দৈর্ঘ প্রায় ২৪৯৪ কিলোমিটার

দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় শুখা মরশুমে খালে জলই থাকে না। অথচ বর্ষায় আশপাশের এলাকাকে ভাসিয়ে নিয়ে যায়।

খাল সংস্কারে উদ্যোগ

- ২,৭৬৮ কোটি টাকার প্রকল্পে খালগুলি সংস্কার করবে রাজ্য

- সংস্কারের পর ছোট ছোট জলাশয় তৈরি করা হবে

- ডিভিসির ছাড়া জলের অনেকটাই এই জলাশয়ে জমা হবে

- ফলে বর্ষায় ডিভিসির জলের চাপ যেমন কমবে

- শুখা মরশুমে তেমনি জলাশয়ের জলে কৃষিকাজও হবে

শুভা মরসুমে যখন জলের চাহিদা বাড়ে, তখন DVC-র কাছে জল চেয়ে পাওয়া যায় না। কিন্তু, বর্ষায় সেই DVC-র জলে ভেসে যায় জেলার পর জেলা। তাই রাজ্য সরকারের এই খাল সংস্কারে একদিকে যেমন উপকৃত হবেন চাষিরা। তেমনি বন্যার ভয়ও কাটবে অনেকটাই। মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

First published: 10:21:49 AM Jul 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर