থমথমে ভাঙড়, সকাল হতেই শুরু নয়া দাবিতে অবরোধ

Jan 18, 2017 09:44 AM IST | Updated on: Jan 18, 2017 09:44 AM IST

#ভাঙড়: উত্তেজনা, বিক্ষোভ, সংঘর্ষ, গুলি চালনা ৷ মঙ্গলবারের অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির পর বুধবার সকালে থমথমে ভাঙড় ৷ জমি আন্দোলনের দুই বিক্ষোভগকারীর মৃত্যুর খবরে চাপা উত্তেজনা ভাঙড়ে ৷ গ্রামে নেই কোনও পুলিশ ৷

মঙ্গলবার সারাদিন চাষের জমি পাওয়াগ গ্রিড নির্মাণের কাজ বন্ধের দাবির পর এদিন নয়া দাবিতে বিক্ষোভ অবরোধের প্রস্তুতি নিচ্ছে ভাঙড় ৷

থমথমে ভাঙড়, সকাল হতেই শুরু নয়া দাবিতে অবরোধ

ভাঙড়ে এসে মুখ্যমন্ত্রীকে নিজে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে মানুষের মুখোমুখি হয়ে প্রকল্পের কাজ বন্ধের কথা ঘোষণা করবেন ৷ এখন এটাই ভাঙড়ের গ্রামবাসীদের দাবি ৷ লাউহাটিতে রাস্তায় ইট, গাছের গুঁড়ি ফেলে সকাল থেকেই শুরু হয়েছে অবরোধ ৷

একইসঙ্গে দু’জনের মৃত্যুতে ফুঁসছে গ্রাম ৷ বাকি আরও একজন আহতের অবস্থা স্থিতিশীল ৷ এডিজি আইনশৃঙ্খলা গতকাল সন্ধেতেই দাবি করেছেন, পুলিশ নয় গুলি চালিয়েছে বহিরাগতরা ৷ বিক্ষোভকারীদের একাংশের অভিযোগ, পুলিশের সঙ্গে উর্দিতেই বেশ কিছু বহিরাগত ঢোকে গ্রামে ৷

পুলিশের বিরুদ্ধে ভাঙড়বাসীর উষ্মা এখানেই শেষ নয় ৷ তাদের অভিযোগ, মঙ্গলবার বেশ কিছু গ্রামবাসীকে জেরা করার জন্য তুলে নিয়ে যায় পুলিশ ৷ সেই ছয় জন গ্রামবাসীর এখনও কোনও খোঁজ নেই দাবি গ্রামবাসীদের ৷

মঙ্গলবার রাতেই পুলিশি অত্যাচারের ভয় বহু মানুষ গ্রাম ছেড়ে চলে যান ৷ এদের মধ্যে একটা বড় অংশই ছিল গ্রামের মহিলারা ৷

ভাঙড় এলাকার সাধারণ মানুষের দাবিকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে রাজ্য সরকার। সেই বার্তা পৌঁছে দিতেই সোমবার প্রকল্পের কাজ স্থগিত রাখার ঘোষণা করে রাজ্য।

তারপরও মঙ্গলবার বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে ভাঙড় ৷ অশান্ত ভাঙড়ের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তৎক্ষণাৎ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, মানুষ না চাইলে, জোর করে জমি নেওয়া হবে না। প্রয়োজনে অন্য কোনও জায়গায় পাওয়ার গ্রিড গড়ে তোলা হবে। ভাঙড়ে কৃষিজমির চরিত্রের কোনও বদল হচ্ছে না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছে রাজ্য সরকার। একইসঙ্গে, পাওয়ার গ্রিড প্রকল্পের কাজ বন্ধের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES