লোকাল ট্রেনে শ্লীলতাহানি, চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা মহিলাকে

Jan 24, 2017 03:50 PM IST | Updated on: Jan 24, 2017 03:50 PM IST

#বারাসত: লোকাল ট্রেনে মেয়েদের নিরাপত্তাহীনতার ঘটনাটি আবারও প্রকাশ্যে এল ৷ রাতের লোকাল ট্রেনে শ্লীলতাহানির মতো গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ উঠল ৷ শুধু তাই নয়, শ্লীলতাহানিতে বাধা দেওয়ায় চলন্ত ট্রেন থেকে মহিলাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয় ৷ সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে হাড়োয়া ও ভাসিলা স্টেশনের মাঝে ৷ ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়ায় গুরুতর আহত হন নির্যাতিতা ৷ সারা রাত রক্তাক্ত অবস্থায় রেললাইনের পাশে পড়েছিলেন তিনি ৷ মঙ্গলবার ভোরে নিকটবর্তী কুমড়ুলি গ্রামের বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করে বারাসত হাসপাতালে নিয়ে যান ৷

জ্ঞান ফেরার পর নির্যাতিতা জানিয়েছেন, রাতের শেষ ডাউন হাসনাবাদ লোকালে বসিরহাট থেকে বারাসতে যাচ্ছিলেন তিনি ৷ রাতের ট্রেন হওয়ায় ফাঁকা ছিল পুরো কামরা ৷ অভিযোগ, মদ্যপ সহযাত্রী তাঁকে একা পেয়ে কুপ্রস্তাব দেন বলে জানিয়েছেন নির্যাতিতা ৷ প্রতিবাদ করলে ওই মদ্যপ যাত্রী মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন ৷ বাধা দিলে নির্যাতিতাকে চলন্ত ট্রেন থেকে ঠেলে ফেলে দেন অভিযুক্ত ৷ সাহায্যের জন্য বহু চিৎকার করলেও কোনও নিরাপত্তারক্ষীর দেখা মেলেনি বলে জানিয়েছেন ওই মহিলা ৷

লোকাল ট্রেনে শ্লীলতাহানি, চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা মহিলাকে

একইসঙ্গে এই ঘটনায় জিআরপি-এর বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ উঠেছে ৷ ঘটনার প্রায় ৬ ঘণ্টা পর মহিলার বয়ান নেয় GRP ৷ ঘটনার ১২ ঘণ্টা পর শুরু পুলিশি তদন্ত ৷ পলাতক অভিযুক্তের খোঁজে চলছে তল্লাশি ৷

চলন্ত ট্রেন থেকে ছিটকে পড়ায় মহিলার মাথায় ও পায়ে গুরুতর আঘাত লেগেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা ৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরের বাসিন্দা ওই মহিলা বালিগঞ্জে আয়ার কাজ করতেন তিনি ৷

অন্যদিকে, পুলিশের দাবি মহিলার বয়ানে প্রচুর অসঙ্গতি রয়েছে ৷ বালিগঞ্জে ডিউটি করে মথুরাপুরে না ফিরে তিনি বারাসতের ট্রেনে কেনও উঠলেন সে উত্তর পাওয়া যায়নি ৷ ঘটনার বেশ কিছু বিবরণ নিয়ে বেশ কিছু অসংলগ্ন তথ্য দেওয়ায় উঠছে প্রশ্ন ৷ তবে তা সত্ত্বেও রাতের ট্রেনে মহিলাদের নিরাপত্তার ফাঁক নিয়ে উঠছে প্রশ্ন ৷ প্রতিদিন শহরতলির হাজার হাজার মহিলা এই লোকাল ট্রেনেই যাতায়াত করেন ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES