প্রেমিকার পাড়ার যুবকদের হাতে প্রহৃত প্রেমিক, মধ্যস্থতা করায় খুন স্থানীয় বাসিন্দা

Jan 24, 2017 01:18 PM IST | Updated on: Jan 24, 2017 01:18 PM IST

#বিষ্ণুপুর: প্রেমিকার পাড়ার যুবকদের হাতে প্রহৃত প্রেমিক। ঘটনার জেরে এলাকায় সালিশিসভা বসানো হয় । সালিশিসভায় অভিযুক্তদের ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেন মধ্যস্ততাকারী ব্যক্তি পূর্ণচন্দ্র মাঝি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায় । তবে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ মেনে নিতে পারেনি অভিযুক্তরা ৷

সালিশিসভা শেষ হওয়ার পর বাড়ির ফেরর পথে পূর্ণচন্দ্র মাঝি উপর চড়াও হয় অভিযুক্তরা ৷ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয় তাকে ৷ প্রেমঘটিতে বিবাদের মীমাংসা করায় খুন হতে হল তাকে ৷

প্রেমিকার পাড়ার যুবকদের হাতে প্রহৃত প্রেমিক, মধ্যস্থতা করায় খুন স্থানীয় বাসিন্দা

জানা গিয়েছে, ঘটনার সূত্রপাত সোমবার সকালে ৷  ঘোষপাড়ায় তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল পাশের পাড়ার এক যুবকের ৷ ঘটনায় আপত্তি ছিল ঘোষপাড়ার যুবকদের পাশের পাড়ার এক যুবকের ৷ সেই কারণে ওই যুবককে মারধর করে ঘোষপাড়ার কয়েকজন যুবক ৷ ঘটনার মীমাংসা করানোর জন্য এলাকায় বসানো হয় একটি সালিশিসভা ৷ মধ্যস্থতা করানোর জন্য ডাকা হয় এলাকার বাসিন্দা পূর্ণচন্দ্র মাঝিকে ৷ অভিযুক্তদের মেয়েটির প্রেমিকের থেকে ক্ষমা চেয়ে ঝামেলা মিটিয়ে নিতে বলেন তিনি ৷ সেই সময় মিটিয়ে নিলেও এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি ওই যুবকরা ৷ রাতে বাড়ি ফেরার পথে পূর্ণচন্দ্র মাঝির উপর হামলা চালায় তারা ৷

স্থানীয়রা তাকে গুরুতর অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায় ৷ কিন্তু চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে হয় ৷ অভিযুক্তদের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ। ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হিসেবে রাহুল নামে এক স্থানীয় যুবকের নাম উঠে আসছে। ঘটনার পর রাহুল এলাকা ছেড়ে পালালেও তার চার শাগরেদকে ধরে ফেলে স্থানীয় মানুষজন। ধৃতদের বেধরক মারধর করে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে উদ্ধার করে চারজনকে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় বসেছে পুলিশ পিকেট।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES