অনলাইন প্রতারণা ফাঁদে ব্যবসায়ী খোয়ালেন লক্ষাধিক টাকা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 01, 2017 06:17 PM IST
অনলাইন প্রতারণা ফাঁদে ব্যবসায়ী খোয়ালেন লক্ষাধিক টাকা
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 01, 2017 06:17 PM IST

#বীরভূম: বোনের বিয়ের জন্য সঞ্চিত টাকা খুইয়ে চরম অনিশ্চয়তায় দিন কাটছে এক ব্যবসায়ীর।

 দেশকে যখন ডিজিটাল ইন্ডিয়ার দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে তৎপর বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার  ঠিক তখন অনলাইন ঠকবাজদের হাতে সর্বস্ব খোয়াছেন সাধারণ মানুষ। বীরভূমের রামপুরহাটের এক মিষ্টান্ন ব্যবসায়ীর সঙ্গে এমনি এক ঘটনা ঘটেছে । অনলাইন ঠকবাজদের পাতা ফাঁদে পড়ে তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে খোয়া গিয়েছে লক্ষাধিক টাকা ৷ ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দিয়ে তুলে নেওয়া হয়েছে প্রায় ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা।

ভারতীয় স্টেট ব্যাংকের রামপুরহাট শাখার পরিচয় দিয়ে ৯৫৭০২৭৭২৪৫ এই নাম্বার থেকে রামপুরহাটের বাসিন্দা সুমন বারিককে  এটিএম কার্ডের মেয়াদ বাড়িয়ে দেবার প্রতিশ্রুতি দেয় এক ব্যক্তি। এর পর এটিএম কার্ডের ১৬ ডিজিট ও সিভিভি নাম্বার জেনে নেয় সে ৷ ওই ব্যবসায়ীকে  দুদিন এটিএম ব্যবহার করতে বারণ করা হয়।

সেই দু’দিনেই বিভিন্ন নামী সংস্থার বিভিন্ন একাউন্ট নাম্বারে টান্সফার করাহয় টাকা। বিষয়টি জানতে পারার পর ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ ও রামপুরহাট থানার দ্বারস্থ হয় ওই ব্যবসায়ী কিন্তু কোথাও কোনো সুরাহা না পেয়ে হন্নে হয়ে ঘুরছেন এই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। বোনের বিয়ের জন্য সঞ্চিত এই টাকা খুইয়ে চরম অনিশ্চয়তায় দিন কাটছে তার।

বীরভূমের রামপুরহাটের চার নাম্বার ওয়ার্ডের বাসিন্দা সুমন বারিক। দীর্ঘদিন ধরে হার্টের অসুখে শয্যাগত তার বাবা বাড়িতে বিবাহ যোগ্য বোন। তার বিয়ের জন্য তিলে তিলে সঞ্চয় করেছিলেন ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ৷ গত ১৪ ফেব্রয়ারি, ৯৫৭০২৭৭২৪৫ থেকে সুমন বাবুর নাম্বারে একটি ফোন আসে ৷ ফোনে  ভারতীয় স্টেট ব্যাংকের রামপুরহাট শাখার প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দিয়ে এটিএম কার্ডের মেয়াদ বাড়িয়ে দেবার প্রতিশ্রুতি দেয় এক ব্যক্তি ৷ সরল মনে ওই ব্যক্তিকে এটিএম কার্ডের ১৬ ডিজিট ও সিভিভি নাম্বার দিয়ে দেন। ১৬ তারিখ অন্য একটি নাম্বার থেকে সুমন বাবুকে ফোন করে জানানো হয়, তার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা চুরি হচ্ছে।

তারপর তড়িঘড়ি ব্যাঙ্কে গিয়ে তার পাস্ বইটি আপডেট করালে সুমন বাবু দেখতে পান, অ্যাকাউন্ট থেকে সমস্ত  টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। তাতে এয়ারটেল মানি, আইডিয়া মানি ,ওলা ক্যাবস, আই সি আই সি আই, অক্সিজেন ওয়ালেট, এমনকি পেটিএমের মাধ্যমে এই টাকা গুলো কাটা হয়েছে। সুমনবাবুর দাবি, এই ঘটনায় ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্কের কর্মীরা যুক্ত আছেন বিষয়টি জানিয়ে রামপুরহাট থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে তার অভিযোগ নেওয়া হয়নি।

First published: 06:17:17 PM Mar 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर