ফলন ভালো হয়েও কেন বিপাকে আমচাষীরা ?

May 05, 2017 12:28 PM IST | Updated on: May 05, 2017 12:28 PM IST

#হুগলি: ফলন ভালো হয়েও বিপাকে সিঙ্গুরের আমচাষীরা। ইটভাটার কালো ধোয়ায় পুড়ে যাচ্ছে আম। স্থানীয় থানা পুলিশ, প্রশাসনিক দফতর ঘুরে হাইকোর্টে পৌঁছেছে সিঙ্গুর ব্লকের বাগডাঙ্গা, ছিনামোড় গ্রাম প়ঞ্চায়েতের আম চাষীরা। কিন্তু হাইকোর্টের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই চলছে ইটভাটার কাজ। ফলে ফলন ভালো হয়েও মাথায় চিন্তার হাত চাষীদের।

সিঙ্গুর ব্লকের বাগডাঙ্গা, ছিনামোড় গ্রামপঞ্চায়েতর নান্দা, হাকিমপুর এলাকার মানুষদের পেশা আম চাষ। বছরের এই একটা সময়েই আম চাষ করে সারা বছরের রুটি রোজগারের যোগান করেন তারা। কিন্তু সেই রুটিতেও এবার টান। ইটভাটার কালো ধোয়ায় উড়েছ ভালো থাকার স্বপ্ন। এই এলাকার কয়েকশো আমচাষীর অভিযোগ, এলাকার ইটভাটার কালো ধোঁয়া লেগে ক্ষতি হচ্ছে আমের। আম পাকার আগেই কালো হয়ে পুড়ে যাচ্ছে নীচের অংশ। ফলে স্বাদে গন্ধে আম পেকে গেলেও, তা বাজারে বিক্রি হচ্ছে না। কাঁচা আমও বিকোচ্ছে না সেভাবে

ফলন ভালো হয়েও কেন বিপাকে আমচাষীরা ?

নবান্ন সহ বিভিন্ন প্রশাসনিক দফতরে অভিযোগ জানিয়েও কোনও ফল হয়নি। বাধ্য হয়েই হাইকোর্টের মামলা করেছিলেন ব্যবসায়ীরা। সেই মামলায় জিতও হয়েছে তাদের। ইটভাটার মালিকদের সাময়িকভাবে ইট পোড়ানোর কাজ বন্ধ রাখতে বলেছে আদালত। কিন্তু কে শোনে কার কথা। কয়েকদিন বন্ধ থাকলেও, আদালতের রায়কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ফের ইট পোড়ানোর কাজ চলছে রমরমিয়ে।

সিঙ্গুরের বিডিও সুমন চক্রবর্তী জানান, আদালতের নির্দেশের পরেও কেন ইট পোড়ানোর কাজ চলছে, তা খতিয়ে দেখা হবে।

বাজারে কাঁচা আমের চাহিদা রয়েছে, গাছেও আম রয়েছে। কিন্তু পুড়ে যাওয়া আম কিনতে চাইছে না কেউ। তাই লিজ নিয়ে আম চাষ করলেও, সেই টাকা উঠবে কিনা তা নিয়ে গভীর চিন্তায় রয়েছেন আমচাষীরা।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES