রবিনসন স্ট্রীট কান্ডের ছায়া দুর্গাপুরে, মৃত মায়ের সঙ্গে তিনদিন কাটালেন ছেলে ।

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Sep 09, 2017 05:30 PM IST
রবিনসন স্ট্রীট কান্ডের ছায়া দুর্গাপুরে, মৃত মায়ের সঙ্গে তিনদিন কাটালেন ছেলে ।
Durgapur man found living with Mother's corpse for past 3 days
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Sep 09, 2017 05:30 PM IST

#দুর্গাপুর: মৃত মায়ের সঙ্গে তিনদিন কাটালেন ছেলে । দুর্গাপুরের নিউটাউনসিপ থানা এলাকায় ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের রবীন্দ্রপল্লীর ঘটনা । মা সানন্দা নন্দীকে নিয়ে এই এলাকায় একটি ঘর ভাড়া নিয়ে থাকতেন ছেলে ইন্দ্রদীপ নন্দী । গত তিনদিন ধরেই পচা গন্ধ পাচ্ছিল এলাকাবাসীরা । শনিবার সন্ধে তা মাত্রা ছাড়ায় । প্রতিবেশীরা গন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে আবিষ্কার করে বছর ষাটেকের মৃতা সানন্দা নন্দীকে । ঘরের মধ্যেই মৃত অবস্থায় বিছানায় পড়ে রয়েছেন তিনি । পচন ধরেছে মৃতদেহে । ইন্দ্রদীপ মৃতার ছোটছেলে, মানসিক ভারসাম্যহীন । ছোটছেলের বয়ান অনুযায়ী মায়ের মৃত্যু হয়েছে দিন তিনেক আগেই । মৃতা মায়ের সাথেই দিন কাটাচ্ছিলেন তিনি । বড় ছেলে ইন্দ্রনীল নন্দী স্ত্রীকে নিয়ে কাছেই অন্য বাড়িতে ভাড়ায় থাকেন । মায়ের সাথে শেষ দেখা হয়েছিল গত রবিবার ।তখন মা ভালই ছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি ।

সানন্দা দেবীর স্বামী দুর্গাপুরের এবিএলে চাকরি করতেন । তিনি প্রয়াত হয়েছেন আগেই । বেশ কিছুদিন আগেই প্রায় সারে সতেরো লক্ষ টাকায় নিজেদের বাড়ি বিক্রি করে রবীন্দ্রনগর এলাকায় এই এক কামরার বাড়ি ভাড়া নেয় নন্দী পরিবার । এই বাড়িতে সানন্দা দেবীর সঙ্গে থাকতেন তার ছোট ছেলে ইন্দ্রদীপ নন্দী । সমস্ত টাকা ছিল বড় ছেলে ইন্দ্রনীলের আয়ত্বে । এমআইএস করা কিছু টাকা প্রত্যেক মাসেই মা ও ভাইয়ের জন্য দিয়ে যেতেন বড় ছেলে ইন্দ্রনীল । বড়ছেলে ইন্দ্রনীল নিজে নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করে এবং ছোটছেলে ইন্দ্রদীপ একটি জিমে ১৫০০ টাকা মাস মাইনেতে কাজ করে ।

এদিন মায়ের মৃতদেহ উদ্ধারের পর সেই বাড়িতেই ইন্দ্রদীপকে দেখা গেল রাতের রান্না করতে । প্রতিবেশীদের মনে হচ্ছে অসুস্থ্যতার কারণেই এমনটা করছে সে । খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় এনটিএস থানার পুলিশ । মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে ময়নাতদন্তর জন্য পাঠানো হয়েছে মহকুমা হাসপাতালে । গোটা ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকায় ।

First published: 05:28:42 PM Sep 09, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर