প্রসবের সময়ে মাথা ছিঁড়ে বেরিয়ে এল সদ্যোজাতর, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 29, 2017 03:37 PM IST
প্রসবের সময়ে মাথা ছিঁড়ে বেরিয়ে এল সদ্যোজাতর, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 29, 2017 03:37 PM IST

#মুর্শিদাবাদ: সন্তান প্রসবের সময়ে মাথা ছিঁড়ে বেরিয়ে এল সদ্যোজাতর। বেরিয়ে এল হাতের খানিকটা অংশও। সেই অবস্থাতেই ছেঁড়া মাথা প্লাস্টিকে মুড়ে পরিবারের হাতে দিয়ে জঙ্গীপুর হাসপাতালে রোগীকে রেফার করে দেয় মুর্শিদাবাদের অনুপনগর ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্র। পরিকাঠামো না থাকায় জঙ্গিপুর থেকে রোগীকে নিযে যাওয়া হয়  মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালে। সেখানেই সিজার করে বের করা হয় শিশুর দেহের বাকি অংশ। চিকিৎসক অভিজিৎ দাশগুপ্তের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পরিবার।

চিকিৎসকের বিরুদ্ধে চরম গাফিলতির অভিযোগ। প্রসব করতে গিয়ে বেড়িয়ে এল শিশুর মাথা। এমনই অমানবিক ঘটনা ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সামসেরগঞ্জ অনুপনগর ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। শুক্রবার প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভরতি হন আলোতি বিবি। লেবার রুমে নর্মাল ডেলিভারির চেষ্টা হয়। তখনই শিশুর মাথা ছিঁড়ে বেড়িয়ে আসে বলে অভিযোগ। ছেঁড়া মুণ্ডুটি প্লাস্টিকের প্যাকেটে ভরে দেওয়া হয় পরিবারের হাতে।

সেই অবস্থাতেই আলোতি বিবিকে রেফার করা হয় জঙ্গিপুর হাসপাতালে। সেখানে পরিকাঠামো না থাকায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালে। সেখানেই সিজার করে বের করা হয় শিশুর দেহের বাকি অংশ।

ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক অভিজিত দাশগুপ্তর বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ পরিবারের। সামসেরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

অভিযুক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছেও অভিযোগ জানানো হয়। যদিও মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালের বিভাগীয় প্রধানের দাবি, অ্যাবনর্মাল শিশুর ক্ষেত্রে এই ধরণের ঘটনা অস্বাভাবিক নয়।

সিজারের পর এখন স্থিতিশীল আলোতি বিবি।  কারণ যাই হোক, ঘটনায় গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে।  মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালের দাবি, রেফার করার সময়ে রোগীর শারীরিক অবস্থা ও শিশুর মাথা ছিঁড়ে বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে কোনও নোট দেয়নি স্বাস্থ্যকেন্দ্র।  কী লুকোতে চেয়েছিল স্বাস্থ্যকেন্দ্র? কেন? থেকে যাচ্ছে অনেক প্রশ্ন।

First published: 03:33:08 PM Apr 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर