দুর্গাপুরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিল শতাধিক কর্মী সমর্থক

May 17, 2017 08:42 PM IST | Updated on: May 17, 2017 08:42 PM IST

#দুর্গাপুর: দুর্গাপুরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিল শতাধিক কর্মী সমর্থক । তৃণমূল দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চল জেলা সভাপতি উত্তম মুখোপাধ্যায় তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন । অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দলের দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চল জেলা কমুটির কার্যকরী সভাপতি ও দুর্গাপুরের ডেপুটি মেয়র অমিতাভ বন্দ্যোপাধ্যায় ।

সাতে চার তৃণমূলের। পাহাড় থেকে সমতল, সাত পুরসভার ভোটেও জোড়াফুল শিবিরের জয়ের ধারা অব্যাহত। দার্জিলিং, কার্শিয়ং হাতে থাকলেও, বিমল গুরুংদের চিন্তায় ফেলে দিল তৃণমূল কংগ্রেসের মিরিক জয়। অধীর ম্যাজিক ফিকে করে নতুন পুরসভা ডোমকলে ফুটেছে জোড়াফুল। দীপার গড়ে ঢুকে রায়গঞ্জ ছিনিয়ে নিয়েছে শাসকদল। হাতেই থাকল পূজালি।

দুর্গাপুরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিল শতাধিক কর্মী সমর্থক

সাত পুরসভার ভোটের ফলঘোষণা। সংখ্যাটা নিতান্তই কম হলেও জোরালো বার্তা দিয়ে গেল বিরোধীদের। পাহাড়ে মিথ মোর্চা। কিন্তু, সেই মিথ মুখ থুবড়ে পড়ল এই ভোটের ফলে। এই প্রথম সেখানে কড়া চ্যলেঞ্জের মুখে পড়ে মোর্চা। আর ভোটের ফলে বিমল গুরুংদের জনপ্রিয়তার শিখর অনেকটাই ছুঁয়ে ফেলল তৃণমূল কংগ্রেস। সেই মোর্চার গড়ে তৃণমূলের থাবা। পাহাড়ে ফুটল ঘাসফুল। মিরিক পুরসভা তৃণমূলের দখলে। ৯টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৬টি ওয়ার্ড পেল তৃণমূল কংগ্রেস। তিন দশক পর পাহাড়ের কোনও পুরসভার ক্ষমতায় সমতলের দল। এই জয় ঐতিহাসিক, মন্তব্য বিমল গুরুং ৷

চার পুরসভার মধ্যে মিরিক দখল করে পাহাড়ে পা রাখল তৃণমূল কংগ্রেস। প্রত্যেক পুরসভাতেই কোনও না কোনও আসনে জয় পেল জোড়াফুল শিবির। মিরিক পুরসভায় মোট ৯ আসন। বিমল গুরুংদের হৃদকম্প বাড়িয়ে সেখানে ৬ আসন দখল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মোর্চার ঝুলিতে মাত্র ৩।

কালিম্পং পুরসভায় মোট ওয়ার্ড ২৩। ১৯ আসন দখল করে তা হাতে রাখতে পেরেছে মোর্চা। কিন্তু, কেখানে ২ আসন পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। হরকা বাহাদুরের জন আন্দোলন পার্টির দখলেও ২ আসন। কার্শিয়ং পুরসভায় মোট ২০ ওয়ার্ড। ১৭ আসন পেয়ে মোর্চা তা নিজেদের দখলেই রেখেছে। কিন্তু, সেখানেও ফুটেছে জোড়াফুল। ৩ আসন তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে।

অন্যদিকে সমতলের তিনটি পুরসভাতেই বিরোধীদের ধূলিসাৎ করে জয়ের পতাকা ওড়াল তৃণমূল ৷ সবুজ ঝড় থেকে বাদ যায়নি অধীর ও দীপার গড়ও। ডোমকলে ফিকে হয়ে গিয়েছে অধীর ম্যাজিক। রায়গঞ্জ হাতছাড়া হয়েছে দীপারও।

ডোমকল পুরসভা তৃণমূলের দখলে ৷ অধীর ম্যাজিক মুছে পুরসভার ২১টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১৮টি ওয়ার্ডেই জয়ী তৃণমূল ৷ তৃণমূল কংগ্রেসকে রুখতে হাতে হাত ধরেছিল ডোমকলের দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিআইএম ও কংগ্রেস। কিন্তু তাতেও রোখা গেল না তৃণমূল ঝড় ৷ ৫ নং ওয়ার্ডে জয়ী তৃণমূলের সৌমিক হোসেন ৷ ২০ নং ওয়ার্ডে জয়ী সিপিআইএম ৷ ৯ ও ২১ নং ওয়ার্ডে জয়ী কংগ্রেস ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES