আউশগ্রাম থানায় হামলার ঘটনায় আটক CPM জোনাল সম্পাদক

Jan 29, 2017 09:21 AM IST | Updated on: Jan 29, 2017 09:21 AM IST

#বর্ধমান: আজও থমথমে বর্ধমানের আউশগ্রাম ৷ বন্ধ বেশিরভাগ দোকানপাট ৷ রয়েছে পুলিশের বাইক বাহিনীও ৷ গতকাল পুলিশি মদতে সরকারি স্কুলের জমি দখলের অভিযোগে আউশগ্রাম থানায় হামলা চালায় উত্তেজিত জনতা। বিক্ষুব্ধদের বেধড়ক মারে কেঁদেই ফেলেন এক পুলিশকর্মী। পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশাল পুলিশ বাহিনী এবং র‍্যাফ মোতায়েন করা হয়। জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধে অঘোষিত বনধের চেহারা নেয় আউশগ্রামে।

অশান্তির বীজ পোঁতা হয়েছিল বেশকিছুদিন আগেই। তা থেকেই শুক্রবার আগুনের ফুলকি দেখা দিয়েছিল। শনিবার তা পুরোপুরি অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির চেহারা নিল। যারজেরে ভাঙড়, বিষ্ণুপুরের পর ফের বর্ধমানের আউশগ্রামে জনতার হাতে মার খেল পুলিশ।

আউশগ্রাম থানায় হামলার ঘটনায় আটক CPM জোনাল সম্পাদক

আউশগ্রাম স্কুলের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন অভিভাবক এবং স্থানীয় বাসিন্দারা। স্কুলের সামনেই হয় প্রতিবাদ সভা। তারপর অদূরে আউশগ্রাম থানা ঘেরাও করে উত্তেজিত জনতা। ইট-পাথর-লাঠি নিয়ে চড়াও হয় থানায়। বেধড়ক মারধর করা হয় পুলিশ কর্মীদের। পুলিশ ভ্যান, মোটরবাইক ভাঙচুড় করে বিক্ষুব্ধরা। থানার সামনে অস্থায়ী কাঠামোয় আগুনও ধরিয়ে দেওয়া হয়।

পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় গুসকরা পৌরসভার কাউন্সিলরকে। ধৃত ওই কাউন্সিলরের নাম চঞ্চল কুমার গড়াই। তিনি গুসকরা পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যানও ছিলেন। চঞ্চল গড়াই-সহ মোট ১১জনকে গ্রেফতার কতরে পুলিশ ৷

এরপর রবিবার সকালে আউশগ্রাম থানায় হামলার ঘটনা গুসকরার CPM জোনাল সম্পাদক সুরেন হেমব্রমকে আটক করেছে পুলিশ ৷ এদিন সুরেন হেমব্রমের বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়েছে ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES