‘আরাবুল-কাইজারের উপর রাগ থাকলে বলুন, আমি দেখব’, ভাঙড়ের মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি

Jun 12, 2017 06:29 PM IST | Updated on: Jun 12, 2017 07:33 PM IST

#ভাঙড়: পাওয়ার গ্রিড বিরোধী আন্দোলনের পর ভাঙড়ে প্রথম সভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চাষের জমি দখল করার অভিযোগে দুষলেন এক শ্রেণির প্রোমোটারকে। বিদ্যুৎ গেলে চাষের ক্ষতি হবে না। উলটে থমকে যাবে উন্নয়ন। ভাঙড়বাসীকে প্রতিশ্রুতি মুখ্যমন্ত্রীর। বহিরাগতরাই অস্ত্র মজুত করছে। সেই অস্ত্র উদ্ধার হবেই।

সরকার যে পাওয়ার গ্রিড চাইছে তা পরিষ্কার করে দিলেন ভাঙড়বাসীর কাছে ৷ বহিরাগতদের প্ররোচনা-উস্কানিতে পা দেবেন না। অপপ্রচারে কান দিয়ে এলাকায় গোলমাল করবেন না। জমি দখলের জন্য কিছু প্রোমোটিং সংস্থা পাওয়ার গ্রিড সম্পর্কে ভুল বুঝিয়ে গোলমাল পাকিয়েছে। ভাঙড়ে সরকারি প্রকল্প উদ্বোধনে গিয়ে অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

‘আরাবুল-কাইজারের উপর রাগ থাকলে বলুন, আমি দেখব’, ভাঙড়ের মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি

একইসঙ্গে ভাঙড়ে শাসক দলের দুই গোষ্ঠীর দ্বন্দ্ব নিয়েও সরব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ এদিন তিনি বলেন, ‘কোনও সমস্যা থাকলে আলোচনা করুন কিন্তু বাইরের লোকের কথায় গোলমাল নয় ৷ কোনও অন্যায় আবদার মানব না ৷ কেউ ভুল বোঝালে বুঝবেন না ৷ কারও উপর রাগ থাকলে বলুন ৷ আরাবুল-কাইজারের উপর রাগ আছে? বলুন আমি দেখব সেটা ৷’

সোমবার ভাঙড়ে ২৫ কিমি রাস্তার সূচনা করতে এসে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের দিনটা ঐতিহাসিক ৷ ভাঙড় থেকে ২৫ হাজার কিমি রাস্তার সূচনা হল ৷ সুন্দরবন কাপে যাঁরা জিতেছেন, তাঁদের প্রতিশ্রুতি মতোই সিভিক ভলান্টিয়ারে চাকরি দেব ৷ ভাঙড়ে মেডিক্যাল কলেজ হবে ৷ কৃষি জমিতে কোনও খাজনা লাগবে না ৷ আমাদের সরকার কৃষকদের জন্য উদার ৷’

ভাঙড় বলতেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে পাওয়ার গ্রিড নিয়ে অশান্ত এক এলাকার চিত্র ৷ এদিনও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ভাঙড়ে পাওয়ার গ্রিড নিয়ে ভুল বোঝানো হচ্ছে। অবৈজ্ঞানিক কথা গ্রামবাসীদের বোঝানো হচ্ছে অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর। আলোয় থাকবেন না অন্ধকারে? ভাঙড়ের সভা থেকে প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রীর ।

আন্দোলনের নামে বাইরে বহিরাগতরা ভাঙড়ে অস্ত্র-বোমা মজুত করেছে। সব উদ্ধার করা হবে বলে ভাঙড়ে হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘পাওয়ার গ্রিড হলে ক্ষতি হয় না ৷ কিছু প্রোমোটিং কোম্পানি জমি নিতে চায় ৷ ওরা বহুতল বানাতে চায় ৷ তাই এমনভাবে জমির দালালি করছে ৷ ওই কোম্পানিগুলিকে চিহ্নিত করা হয়েছে ৷ মিথ্যা, কুৎসা রটিয়ে অপপ্রচার হচ্ছে ৷ উন্নয়ন ঠেকাতে এসব করছে ৷ যাদের কাছে অস্ত্র আছে ৷ তাদের আত্মসমর্পণ করতে বলছি ৷ সব বোমা-অস্ত্র উদ্ধার করবই ৷’

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES