বোমা ফেটে মৃত ৮, সিপিএম-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তাল লাভপুর

Apr 21, 2017 03:17 PM IST | Updated on: Apr 21, 2017 06:42 PM IST

#বীরভূম: গ্রাম দখলের লড়াই। দফায় দফায় তৃণমূল- সিপিএম সংঘর্ষে অগ্নিগর্ভ লাভপুর। বোমাবাজিতে দ্বারকাগ্রামে মৃত্যু হল অন্তত ৮ জনের। আশঙ্কাজনক আরও কয়েকজন। তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের দাবি, বোমা ছুড়েছে সিপিএমই। যদিও তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বোলে অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে সিপিএম।

গ্রাম দখলের লড়াই ঘিরে ফের উত্তপ্ত লাভপুর। দরগাপুর গ্রামের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সিপিএম-তৃণমূলের মধ্যে গন্ডগোল অনেকদিন ধোরেই। শুক্রবার সকালে পরিস্থিতি চরমে গড়ায়। সকাল থেকে দরগাপুরে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে সিপিএম ও তৃণমূলের মধ্যে। চলে বোমাবাজি। ইট-লাঠিসোটা নিয়ে তাণ্ডব চালায় দুষ্কৃতীরা।  নিরীহ গ্রামবাসীদের ঘরবাড়ি অবাধে ভাঙচুর করে উভয়পক্ষই। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। পুলিশ পৌঁছতেই ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় দু’দলের দুষ্কৃতীরা। কিন্তু ততক্ষণের মতো রণে ভঙ্গ দিলেও দ্বারকা গ্রামে গিয়ে ফের লড়াইয়ের প্রস্তুতি চলতে থাকে। সন্ধেয় সংঘর্ষের জন্য পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে বোমা বাঁধা হয়। সেইসময় বোমা ফেটে মারা যায় কয়েকজন।  পরে হাসপাতালে আরও কয়েকজনের মৃত্যু হয়।  প্রত্যক্ষদর্শীদের ভিন্নমতে, বোমাবাজিতে না কি বোমা ফেটে মৃত্যু তা নিয়ে ধন্ধ তৈরি হয়েছে।

বোমা ফেটে মৃত ৮, সিপিএম-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তাল লাভপুর

যদিও বীরভূম তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের দাবি,ওই গ্রামে বালিখাদান দখল নিয়ে সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতীদের লড়াই দীর্ঘদিনের। সেইকারণেই বোমা বাঁধা হচ্ছিল। বোমা ফেটেই মৃত্যু হয়েছে কয়েকজন দুষ্কৃতীর।

ঘটনার পর দ্বারকায় পৌঁছন বোলপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার । বোমাবাজির পর থেকে থমথমে দরগাপুর, দ্বারকা গ্রাম। ভয়ে অনেকেই গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছেন। গ্রামগুলিতে আরও কোনও দেহ আছে কি না তা খুঁজে দেখছে পুলিশ।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES