এই গ্রামের মেয়েদের কেন বিয়ে হচ্ছে না ? কারণটা জানলে অবাক হবেন !

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Aug 03, 2017 01:21 PM IST
এই গ্রামের মেয়েদের কেন বিয়ে হচ্ছে না ? কারণটা জানলে অবাক হবেন !
Photo : AFP
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Aug 03, 2017 01:21 PM IST

#আসানসোল: এ যেন আজব গ্রাম। রাস্তা বেহাল হওয়ার কারনে গ্রামের মেয়েদের বিয়ে হয় না। অত্যাধিক বৃষ্টির জন্য পূর্ব বর্ধমান জেলার রায়নাতে কোলে তুলে বর কনেকে নিয়ে যেতে হয় । এর পিছনে কারণ প্রাকৃতিক দুর্যোগ নয় ৷ পুরনিগমের উদাসীনতার জন্যই রাস্তার এই বেহাল অবস্থা ।

তাহলে কি করে হবে কন্যাদের বিয়ে ? মেয়ে পছন্দ হলেও গ্রামের রাস্তা বেহালের কারনে বিয়েতে আপত্তি জানান পাত্রপক্ষ ৷ এমনটাই দাবি গ্রামবাসীদের। ঘটনাস্থল আসানসোলের বিনোদবাঁধ গ্রামে। এক কথায় উন্নয়নের ছোঁয়া পৌঁছয়নি এই গ্রামে ।

আসানসোল পুরনিগমের ৯৯ নম্বর ওয়ার্ডে অবস্থিত বিনোদবাঁধ গ্রামে। এই গ্রামে প্রায় ৭০০ পরিবার-সহ ৩০০০ মানুষের বসবাস। গ্রামের ঢোকার জন্য যে মূল রাস্তা রয়েছে , তার দীর্ঘদিন ( প্রায় ২০ বছর ) ধরে বেহাল অবস্থা। আর এই রাস্তার কারনেই চরম সমস্যায় ভুগছেন গ্রামের সাধারণ মানুষ। এই বেহাল রাস্তার কারনেই ছেলে মেয়েদের বিয়েও হচ্ছে না। পাত্রপক্ষ গ্রামে এসে পাত্রী পছন্দ করছেন কিন্তু রাস্তা বেহালের জন্য বিয়ে করতে রাজী হচ্ছে না। এর ফলে গ্রামের কন্যা সন্তানেরা সমস্যায় পড়েছেন। এর পাশাপাশি রাস্তা বেহালের কারনে গ্রামের ছেলেদের বিয়ে করতে যেতেও অসুবিধা হচ্ছে।

গ্রামে কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে রাস্তা বেহালের জন্য কোনও গাড়ি আসতে চায় না। গ্রামবাসীদের দাবি রাস্তা বেহালের জন্য একদিকে যেমন গ্রামের কারোর বিয়ে হচ্ছে না, তেমনি কেউ অসুস্থ হলে গ্রামে গাড়ি না আসায় হাসপাতালে নিয়ে যেতেও অসুবিধা হচ্ছে। তাই সব মিলিয়ে চরম সমস্যায় পড়েছেন গ্রামের মানুষ। গ্রামের মানুষদের অভিযোগ ভোট এলে নেতারা রাস্তা তৈরির প্রতিশ্রুতি দেয় কিন্তু ভোট শেষ হলে  তাদের আর দেখা যায় না। তাই পুরনিগম কর্তৃপক্ষের কাছে গ্রামবাসীদের এখন একটাই আর্জি, রাস্তা তৈরি করা হোক। যদিও এই বিষয়টি জানা নেই বলে জানান পুরনিগমের চেয়ারম্যান অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়। তবে গ্রামবাসীদের তরফে কোনও আবেদন পেলে রাস্তা তৈরি করার আশ্বাস দিয়েছেন চেয়ারম্যান। গ্রামবাসীদের এই রাস্তার সমস্যা কখন সমাধান হয়, সেটাই এখন দেখার।

First published: 04:04:50 PM Aug 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर