বাড়ি কার দখলে ? এই নিয়ে টানাপোড়েনে চারদিন তালাবন্দী বৃদ্ধা

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 05, 2017 12:04 PM IST
বাড়ি কার দখলে ? এই নিয়ে টানাপোড়েনে চারদিন তালাবন্দী বৃদ্ধা
Photo : AFP
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 05, 2017 12:04 PM IST

#বারুইপুর:  বাড়ির দখল কে রাখবে, তা নিয়ে ঝামেলার জেরে চারদিন ধরে প্রাক্তন স্বামীর বাড়িতে তালাবন্দী ডিভোর্স হওয়া বৃদ্ধা স্ত্রী। বৃদ্ধ স্বামী বাড়ির দখল না পেয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছেন। দু’জনেই অসহায় অবস্থার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। বারুইপুরের পঞ্চানন পাড়ায় নজিরবিহীন এই ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধেও।

বারুইপুর পঞ্চানন পাড়ার অবসরপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারি অসিত দে-র সঙ্গে দীর্ঘদিনের ঝামেলা তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী সুমিতাদেবীর। পরিস্থিতি এমন জায়গায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে, যে ঘরে তালাবন্দি হয়ে কাটাচ্ছেন ওই বৃদ্ধা। পাড়ার লোকজন জানালা দিয়ে খাবার দিয়ে যাচ্ছেন তাঁকে। তাঁর মরণপন বাড়ি কিছুতেই ছাড়বেন না। তাঁর দাবি, শাশুড়ির কাছ থেকে চাপ দিয়ে বাড়িটি লিখিয়ে নিয়েছিলেন অসিত। চারদিন হল বাড়িতে পুলিশ তালা লাগিয়ে দিয়ে গিয়েছে। ভেতরে রয়ে গিয়েছেন ষাট বছরের বৃদ্ধা সুমিতাদেবী।

এক মেয়ের বিয়ে হয়ে গিয়েছে, স্বামী স্ত্রী-র ছাড়াছাড়িও হয়ে গিয়েছে প্রায় ৮ বছর হল। কিন্তু এখন পঞ্চানন পাড়ায় সেই দোতলা বাড়ি ঘিরেই যত কাণ্ড। ওদিকে, অসিতবাবুর ইচ্ছে বাড়ি প্রমোটারদের বিক্রি করে দেবেন। কিন্তু তা পারছেন না প্রাক্তন স্ত্রী-র জন্য। তাই বাড়ি বিক্রি করতে চেয়ে প্রমোটারদের কাছে ঘুরে বেড়াচ্ছেন তিনি। তাঁর দাবি, কাগজপত্র সব ঠিকই রয়েছে। কিন্তু সুমিতাদেবীই তাঁকে বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছেন না। বাড়ির মালিকানা নিয়ে মামলা চলছিল। অসিতবাবুর দাবি, সম্প্রতি বারুইপুর আদালত তাঁর দিকেই রায় দিয়েছে। এর জেরেই বাড়িতে ফিরে থাকতে গিয়েছিলেন ওই বৃদ্ধ। কিন্তু তা না পেরে এখন বাধ্য হয়েই ভাড়া বাড়িতে উঠেছেন। তাঁর আক্ষেপ, পৈত্রিক ভিঁটে বিক্রির টাকা, অবসর গ্রহণের সময় পাওয়া সব টাকা দিয়ে ওই দোতলা বাড়ি তৈরি করেছিলন তিনি। কিন্তু নিজের বাড়ি থেকেই বিতাড়িত তিনি। পুরো ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে অমানবিক হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

কেন বাড়ির দখল নিতে গিয়ে ওরকমভাবে বৃদ্ধাকে তালা বন্দি করে দিলেন তাঁরা? পাড়ার বাসিন্দারা দাবি করছেন, পুলিশ যখন আদালতের নির্দেশে বাড়ির দখল অসিতবাবুকে সঙ্গে নিয়ে আসেন, তখন কোনও মহিলা কনস্টেবল সঙ্গে ছিল না। তাই বাধ্য হয়েই বৃদ্ধাকে আর টানাটানি করার ঝুঁকি নেয়নি তাঁরা। বৃদ্ধা বাড়ি থেকে না বের হতে চাইলে তাঁকে ভেতরে রেখেই বাড়িটি তালাবন্ধ করে দিয়ে চলে যায় পুলিশ।

First published: 12:04:30 PM May 05, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर