বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি বাঁকুড়ায়, জলমগ্ন আসানসোলও

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jul 24, 2017 10:35 AM IST
বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি বাঁকুড়ায়, জলমগ্ন আসানসোলও
Photo : AFP
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jul 24, 2017 10:35 AM IST

#বাঁকুড়া: বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির তেমন উন্নতি হল না বাঁকুড়া জেলায় ৷ দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে জল ছাড়ায় নতুন করে বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে ৷

জেলার গন্ধেশ্বরী , দারকেশ্বর , শিলাবতী , কংসাবতী , ভৈঁরোবাঁকি ও শালী নদীর জল এখনও বিপদসীমা ছুঁয়ে বইছে । বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় দারকেশ্বরের জলে এখনও মিনাপুর ও ভাদুল সেতু ডুবে রয়েছে ৷ ওই দুটি সেতু দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে । গন্ধেশ্বরী নদীর উপর মানকানালি সেতুটিও ডুবে থাকায় বাঁকুড়া মানকানালি সড়কে যান চলাচল বন্ধ ।

এদিকে আজ সকাল থেকে দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে জল ছাড়তে শুরু করায় নতুন করে সোনামুখী , পাত্রসায়ের ও ইন্দাস ব্লকের একাংশ প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে । সাধারনত দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে জল ছাড়লে ভৌগোলিক কারনে বাঁকুড়ার শালী নদীর জল পাত্রসায়ের ব্লকে আটকে পড়ে বন্যার সৃষ্টি করে । এবারও তেমন পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা স্থানীয়দের । এদিকে একটানা বৃষ্টিতে বাঁকুড়া শহরের কানকাটা ও পলাশতলার বিস্তীর্ণ এলাকায় জল জমে জলবন্দী হয়ে পড়েছেন বহু মানুষ । বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলার বন্যা প্রবন ব্লকগুলিতে সতর্কতা জারি রেখেছে বাঁকুড়া জেলা প্রশাসন । সোনামুখী , পাত্রসায়ের , ইন্দাস , জয়পুর ও কোতুলপর ব্লকের সবকটি গ্রাম পঞ্চায়েতকে পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখতে বলা হয়েছে ।

এদিকে টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন আসানসোলের বেশ কিছু নিচু এলাকাও ৷ বৃষ্টিতে জল জমেছে ইসিএলের খোলামুখ খনিতে ৷ তার জেরে উৎপাদন ব্যাহত খোলামুখ খনিতে ৷ বৃষ্টিতে জলমগ্ন আসানসোলের একাধিক ওয়ার্ড ৷  জল বেড়েছে অজয় ও দামোদর নদেও ৷

First published: 10:35:00 AM Jul 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर