দুর্ঘটনার পরও মনের জোরে হাসপাতাল বেড থেকেই মাধ্যমিক দিল পরীক্ষার্থী

Feb 23, 2017 05:43 PM IST | Updated on: Feb 23, 2017 05:43 PM IST

#বর্ধমান: পরীক্ষা কেন্দ্রের যাওয়ায় পথে পথ দুর্ঘটনায় জখম হল এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ।জখম পরীক্ষার্থীর নাম মেনকা কিস্কু।তাকে ভর্তি করা হয় বর্ধমান ২ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে বামচাঁদাইপুরের একটি বেসরকারী হাসপাতালে। তারপর বর্ধমান ২ নম্বর ব্লকের বিডিও ও পুলিশের যৌথ প্রচেষ্টায় এবং পর্ষদের উদ্যোগে জখম মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর পরীক্ষার বন্দোবস্ত করা হয় । মেনকা হাসপাতালের বেডে বসেই পরীক্ষা দিচ্ছে। নির্ধারিত সময় অর্থাৎ দুপুর ১২ টায় তার পরীক্ষা শুরু হয়।

অন্যদিকে, বুধবার বর্ধমানে দুর্ঘটনায় জখম মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী শেষপর্যন্ত বসতে পারল না পরীক্ষায়। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর নাম শেখ রয়াল। বর্ধমানের ভাতাড় মাধব পাবলিক ইনস্টিটিউশনের ছাত্র।

দুর্ঘটনার পরও মনের জোরে হাসপাতাল বেড থেকেই মাধ্যমিক দিল পরীক্ষার্থী

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ক্যান্টার উল্টে রয়াল গুরুতর জখম হয়। তার বাঁ পায়ে ও হাতে চোট লাগে। তাকে ভর্তি করা হয় বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে। তিন দিন পর রয়াল খানিকটা সুস্থ বোধ করায় মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবার ইচ্ছা প্রকাশ করে । রয়ালের পরিবার গোটা বিষয়টি স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানায়ও। স্কুলও যথারীতি পর্ষদকে রয়ালের বিষয়টি জানায়।

হাসপাতালও পরীক্ষা দেবার বন্দোবস্ত করে। কিন্ত বুধবার মাধ্যমিকের প্রথম দিনের পরীক্ষা নির্ধারিত সময় দুপুর ১২ টা শুরু হলেও বর্ধমান হাসপাতালে শেখ রয়ালের পরীক্ষার জন্য পর্যদের পক্ষ থেকে কোন রকম ব্যবস্থা নেওয়া হয় নি। স্বাভাবিক ভাবেই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সেখ রয়াল পরীক্ষা দিতে না পেরে মুষড়ে পড়েছে।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES