বেআইনি ঝুপড়িতে লাগাম পরানোর পুরসভার, ঝুপড়িবাসীদের জন্য বিকল্প আবাসন

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2017 12:31 PM IST
বেআইনি ঝুপড়িতে লাগাম পরানোর পুরসভার, ঝুপড়িবাসীদের জন্য বিকল্প আবাসন
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2017 12:31 PM IST

#কলকাতা: সল্টলেক-নিউটাউনে বেআইনি ভাবে গজিয়ে ওঠা ঝুপড়িতে লাগাম পরাতে চলেছে বিধাননগর পুরসভা। বিশেষ করে, ঝুপড়িতে বেআইনিভাবে দোকান চালানো নিয়ে আপত্তি পুরসভার। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দোকানগুলিকে এক জায়গায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে পুরসভা,নবদিগন্ত ও হিডকোর।

 সল্টলেক, সেক্টর ফাইভ, নিউটাউন জুড়ে তথ্যপ্রযুক্তি হাব ও একাধিক অফিস। সেগুলিকে কেন্দ্র করেই ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে বেআইনি ঝুপড়ি। যেখানে রমরমিয়ে চলছে খাবারের দোকান। এবার সেগুলির বাড়বৃদ্ধিতে লাগাম পরাতে চাইছে বিধাননগর পুরসভা ও নবদিগন্ত। বার্তা, যত্রতত্র ঝুপড়ি নয়। কিন্তু, কেন?

- যত্রতত্র ঝুপড়িতে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা

- রবিবার রাতে নিউটাউনের টিসিএস বিল্ডিংয়ের পাশে আগুন

- অগ্নিকাণ্ডে টিসিএসের নিরাপত্তারক্ষীর মৃত্যু

- ঝুপড়ির জেরে শহরের সৌন্দর্যায়ন পরিকল্পনা নষ্ট হচ্ছে

আরও পড়ুন,

নিউটাউনে টিসিএস বিল্ডিংয়ের সামনে আগুন, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ১

 বেআইনি ঝুপড়ি রুখতে উপযুক্ত পরিকল্পনা নিচ্ছে বিধাননগর পুরসভা। পাশে রয়েছে হিডকো ও নবদিগন্ত।

বেআইনি ঝুপড়ি রুখতে পরিকল্পনা

- প্রাথমিক ভাবে বেআইনি ঝুপড়ির সংখ্যা জানতে চাইছে পুরসভা

- এব্যাপারে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পুলিশকে

- গরিব ও জমিহারাদের জন্য হাউসিং ফর আরবান প্রকল্পে বাড়ি

- দোকানগুলির জন্য পুনর্বাসন প্রকল্পের ভাবনা

- সল্টলেক, সেক্টর ফাইভ ও নিউটাউন জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে একাধিক দোকান

- সেগুলিকে একছাতার তলায় আনার ভাবনা

- ইতিমধ্যেই টাটা কনসালটেন্সি সেন্টারের কাছে মার্কেট প্লেস তৈরির কথা ভাবা হচ্ছে

আরও পড়ুন,

প্লাস্টিক নয় কড়েয়ার ডিম, জানাল রিপোর্ট

 গতকালই টিসিএস বিল্ডিংয়ের সামনের ঝুপড়িতে আগুন লেগে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়, আহত আরও এক ৷  অস্থায়ী খাবার দোকানগুলি থেকে আগুন লাগার বিপদ এড়ানো যাচ্ছে না ৷ আগুনে ভস্মীভূত হয়ে যায় প্রায় ২০টি দোকান ৷ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির ৷ মৃত ব্যক্তির নাম জয়ন্ত মণ্ডল বলে জানা গিয়েছে ৷ আহত হয়েছেন আরও ১ জন ৷

এই দুর্ঘটনার পরই আরও নড়েচড়ে বসে বিধাননগর পুরসভা। ঝুপড়ির সংখ্যা নির্ধারণে পুলিশকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ৷

First published: 12:29:46 PM Apr 04, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर