শীঘ্রই চাকরি যেতে পারে প্রায় ১৮০০ সরকারি কর্মচারীর!

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 17, 2017 04:49 PM IST
শীঘ্রই চাকরি যেতে পারে প্রায় ১৮০০ সরকারি কর্মচারীর!
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 17, 2017 04:49 PM IST

#নয়াদিল্লি: মিথ্যাচারের দায়ে চাকরি হারাতে পারেন ১৮০০-এরও অধিক সরকারি কর্মচারী ৷ এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করেছে কেন্দ্র ৷ নির্দেশিকা অনুযায়ী কোনও কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী যদি ভুয়ো বা জাল কাস্ট সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরি পেয়ে থাকেন তাহলে তাঁকে শীঘ্রই বহিষ্কার করা হবে ৷

অনেকদিন ধরেই তফশিলী জাতি, উপজাতি বা অন্য কোনও পিছিয়ে পড়া জাতির ভুয়ো-জাল সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার অভিযোগ উঠছে ৷ সেই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে উদ্যোগী কেন্দ্রীয় সরকার ৷ ইতিমধ্যেই সরকারি কর্মচারীদের রেকর্ড ঘেঁটে যে তথ্য যোগাড় করেছে কেন্দ্র তা জানলে বিস্মিত হবেন ৷

এই সংক্রান্ত সরকারি রিপোর্টে প্রকাশিত, কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দফতরে ভুয়ো সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরি করছেন প্রায় ১৮০০-এরও বেশি কর্মচারী ৷ মিথ্যা বলে চাকরিতে যোগ দেওয়া এই সব কর্মচারীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র ৷ রিপোর্টে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, এর মধ্যে অধিকাংশই ব্যাঙ্ক, বিমার মতো ফিনান্সিয়াল সেক্টরে কর্মরত ৷

সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, চাকরির আবেদনের সময় নিজের সম্পর্কে ভুল তথ্য দিলে বা চাকরি পেতে কোনও মিথ্যা, জাল শংসাপত্র জমা দিলে তাকে তৎক্ষণাৎ বরখাস্ত করা হবে ৷

জাল কাস্ট সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরি পাওয়ার বিষয়টি নিয়ে মার্চ মাসেই লোকসভায় আলোচনা করেছেন কর্মচারী বিষয়ক মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী জীতেন্দ্র সিং ৷ তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মোট ১৮৩২ জন কর্মচারীকে শনাক্ত করা হয়েছে যারা জাল সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরি করছেন ৷ তাঁর মধ্যে ২৭৬ জনকে বরখাস্ত করা হয়েছে ৷ ৫২১ জনের মামলা আইনি জটে আটকে রয়েছে ৷ এছাড়াও এই সংক্রান্ত মোট ১০৩৫টি মামলা বিচারাধীন ৷

প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী শুধু ফিনান্সিয়াল সেক্টরেই ১২৯৬ জন ভুয়ো সার্টিফিকেটধারীর খোঁজ মিলেছে ৷ এর মধ্যে স্টেট ব্যাঙ্কে ১৫৭, কানাড়া ব্যাঙ্কে ১৩৫জন, ইন্ডিয়ান ওভারসীজ ব্যাঙ্কে ১১২ জন, সিন্ডিকেট ব্যাঙ্কে ১০৩ জন এবং নিউ ইন্ডিয়া অ্যাসুরেন্স ও ইউনাইটেড ইন্ডিয়া অ্যাসুরেন্স মিলিয়ে ৪১ জন ভুয়ো চাকরিজীবীর খোঁজ মিলেছে ৷

First published: 04:49:37 PM Jun 17, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर