সিঙ্গুর থেকে মোদির কাছে কেন গেল ন্যানো, আসল সত্যিটা জানালেন রতন টাটা

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 20, 2017 08:23 PM IST
সিঙ্গুর থেকে মোদির কাছে কেন গেল ন্যানো, আসল সত্যিটা জানালেন রতন টাটা
Ratan Tata. (Image: Network18 Creatives)
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 20, 2017 08:23 PM IST

#নয়াদিল্লি: ২০০৬-এ সিঙ্গুরে একলাখি গাড়ি প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন তত্কালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। ৷ বাম সরকারের এই সিদ্ধান্তকে ঘিরেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে হুগলির শান্ত সিঙ্গুর। শুরু হয় আন্দোলন। তারই মধ্যে ২০০৭-এ বছরের শুরুতেই প্রকল্প নির্মাণ শুরু করে টাটা ৷ সিঙ্গুরের মাঠে-ময়দানে শুরু হয়ে যায় রাজনীতির লড়াই ৷ কারখানার জন্য রাজ্য সরকার সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু করে। কিন্তু, অনেকেই জমি দিতে অস্বীকার করেন। সেই অনিচ্ছুক চাষিদের পাশে দাঁড়িয়ে বিষয়টি নিয়ে আন্দোলনে নামে সেই সময়কার বিরোধী দল তৃণমূল।

জমি আন্দোলনের হাত ধরেই ধীরে ধীরে পায়ের তলার মাটি শক্ত করেছে তৃণমূল। তৃণমূলের ধারাবাহিক সেই আন্দোলনের জেরে অনেক টানাপড়েনের পর টাটা গোষ্ঠী এ রাজ্য থেকে তাদের ন্যানো প্রকল্প তুলে নেয়। অবশেষে পশ্চিমবঙ্গে ন্যানো কারখানা গুটরাতে সরিয়ে নিয়ে যেতে বাধ্য হয় টাটা ৷

১৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে Network 18-এর বিজনেস চ্যানেল CNBC TV 18-কে দেওয়া একটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে এই বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা করলেন টাটা সন্সের চেয়ারম্যান রতন টাটা ৷

এদিন তিনি রতন টাটা জানান, ‘জমি আন্দোলনের জেরে পশ্চিমবঙ্গ ন্যানো কারখানা খোলা সম্ভব ছিল না ৷ সেই সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ সেই সময় ন্যানো কারখানা খোলার জন্য জমির দরকার ছিল ৷ মোদিজি সেই সময় সাহায্য করেছিলেন ৷ আমি জানিয়েছিলাম যে আমার জমি দরকার কারখানা তৈরি করার জন্য ৷ মোদিজি সেই সময় এগিয়ে এসেছিলেন ৷ এবং প্রতিশ্রুতি মতো তিনদিনের মধ্যে গুজরাটে কারখানা তৈরি করার জন্য জমি দিয়েছিলেন ৷ তৃতীয় দিনের সকালে তিনি আমায় জানান যে এটা আপনার কারখানার জমি ৷ সাধারাণত এত কম সময়ে এরকম ব্যাপার ভারতবর্ষে হয়ে থাকে না ৷’

টাটা আরও জানান, ‘নরেন্দ্র মোদি নতুন ভারত গড়ার প্রচেষ্টা করছেন ৷ দেশের উন্নয়নের জন্য একের পর এক নজিরবিহীন উদ্যোগ নিচ্ছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী ৷ তাকে সফল করার জন্য আমাদের তাকে সবরকমের সাহায্য করা উচিৎ ৷’ তিনি আরও জানান যে মোদির নেতৃত্বের উপর তার পুরোপুরি আস্থা রয়েছে ৷

এদিনের সাক্ষাৎকারে টাটা গ্রুপ, দেশের অর্থনীতি থেকে রাজনীতি সব কিছু নিয়েই নেটওয়ার্ক ১৮-এর সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনা করেছেন রতন টাটা ৷

First published: 07:21:51 PM Sep 20, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर